Home » Author Archives: আমাদের বুধবার (page 27)

Author Archives: আমাদের বুধবার

ওরসন ওয়েলস :: স্বৈরাচার বিরোধী এক কিংবদন্তী (দ্বিতীয় পর্ব)

ফ্লোরা সরকার

Last 6হলিউডের সিনেমা জগতে ওরসন ওয়েলস একজন কিংবদন্তীর নাম। যাত্রার শুরুতেই যিনি কাঁপিয়ে দিয়েছিলেন হলিউড এবং বিশ্ব সিনেমা জগতকে। শুধু ছবি নয়, একাধারে, মঞ্চ এবং রেডিওতেও তিনি ছিলেন একজন সক্রিয় শিল্পকর্মী। অনেকের তোপের মুখে পড়েছেন তার বামপন্থী এবং কমিউনিস্ট পার্টির প্রতি আগ্রহের কারণে। হলিউড ঘারানার বিপরীতে গিয়ে সিনেমা নির্মাণ তার জন্যে ছিলো একটি চ্যালেঞ্জেলের মতো। সবকিছু অতিক্রম করে, শেষ পর্যন্ত তিনি একজন সার্থক অভিনেতা এবং নির্মাতা হয়ে রইলেন। গত ৬ মে ছিলো তার জন্মশতবার্ষিকী। এই শিল্পীর প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে ডেভিড ওয়েলস এবং জোয়ান লরিয়ের তার চলচ্চিত্র কর্মের উপর বিশেষ প্রতিবেদন প্রকাশ করেন। তার প্রধান ও গুরুত্বপূর্ণ অংশগুলো ধারাবাহিকভাবে প্রকাশ করা হলো।

ওয়েলসের চলচ্চিত্র কর্মের উপর বস্তুনিষ্ঠ যে সমালোচনাটা কখনোই করা হয়নি আর তা হলো, আমেরিকার রাজনৈতিক জীবনের অন্যতম সমস্যাসঙ্কুল প্রশ্ন, লিবারেলিজম বা উদারতাবাদ এবং ডেমোক্রেট বা গণতন্ত্রবাদী দলের ক্রমবিকাশের সঙ্গে তার সম্পর্ক নিয়ে। বিস্তারিত »

সামনে কোরবানী :: ভারতীয় ‘গরু’ রাজনীতি

এস এন এম আবদি

অনুবাদ : মোহাম্মদ হাসান শরীফ

Dis 5প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০০৯ সালে ক্ষমতায় আসার পর থেকে বাংলাদেশ নামের ছোট্ট প্রতিবেশী দেশটি ভারতের একেবারে প্রতিটি আবদার বিনা বাক্য ব্যয়ে মিটিয়ে চলছিল। কিন্তু স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে রাজনাথ সিংয়ের সবচেয়ে বড় ‘অর্জনের’ কারণে সেই দেশটির সাথে সম্পর্কে মারাত্মক টানাপোড়েনের সৃষ্টি হয়েছে। গরুর গোশতের দাম আকাশচুম্বি হওয়া এবং ২৫ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠেয় ঈদউল আযহায় কোরবানি করার মতো পশুর স্বল্পতার কারণে বাংলাদেশীরা আজ ক্রুদ্ধ। উভয় সমস্যা সৃষ্টি হয়েছে রাজনাথের হিন্দুত্ববাদী বা হিন্দুৎভা নীতির কারণে, যা একই সাথে অর্থনৈতিক গতিপ্রবাহের সাধারণ সূত্রের পরিপন্থী এবং ভারতের জাতীয় স্বার্থবিরোধী। বিস্তারিত »

একদিকে খাদ্য নিরাপত্তাহীনতা অন্যদিকে রফতানির স্বপ্ন

আমাদের বুধবার প্রতিবেদন

Dis 4বাংলাদেশে এখন হয়তো না খেয়ে মারা যাবে না মানুষ। কিন্তু আধাপেটা খেয়ে বেঁচে থাকতে হচ্ছে অধিকাংশ মানুষকে। স্থানীয় পর্যায়ে করা একাধিক গবেষণায় বিষয়টি উঠে এসেছে। সম্প্রতি যুক্তরাজ্যভিত্তিক দি ইকনোমিষ্ট ইন্টেলিজেন্স ইউনিটের গবেষণা প্রতিবেদনে বাংলাদেশের খাদ্য নিরাপত্তার সঙ্গীন অবস্থা তুলে ধরা হয়েছে। তারা বলছে, বিশ্বে খাদ্যনিরাপত্তায় নিচের সারিতে থাকা দেশগুলোর একটি বাংলাদেশ। সম্প্রতি ইআইইউ প্রকাশিত ‘গ্লোবাল ফুড সিকিউরিটি ইনডেক্স ২০১৫’ শীর্ষক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বৈশ্বিক খাদ্যনিরাপত্তা সূচকে ১০৯টি দেশের মধ্যে বাংলাদেশের অবস্থান ৮৯তম। শুধু তাই নয়, এক্ষেত্রে দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে সর্বনিম্নে এবং এশিয়া প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের ২২টি দেশের মধ্যে ২১তম অবস্থানে রয়েছে বাংলাদেশ। বিস্তারিত »

আইন ভেঙ্গে গ্যাস-বিদ্যুতের নির্বিচার মূল্যবৃদ্ধি

এম. জাকির হোসেন খান

Dis 3ক্ষমতাসীনরা কথায় কথায় আইনের শাসন এবং জবাবদিহিতার কথা বললেও কোনো প্রকার স্বচ্ছতা ছাড়াই গত জানুয়ারিতে গ্যাসবিদ্যুতের বাতিল হয়ে যাওয়া গণশুনানিকে ভিত্তি করে, গ্রাহকের স্বার্থ বিবেচনা না করে, একতরফাভাবে বিদ্যুতের দাম ২ দশমিক ৯৩ শতাংশ এবং গ্যাসের দাম ২৬ দশমিক ২৯ শতাংশ বাড়িয়েছে। বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন (বিইআরসি) আইনের ৩৪() ধারায় বলা হয়েছে, ‘লাইসেন্সী ট্যারিফ পরিবর্তনের প্রস্তাব বিস্তারিত বিবরণসহ, কমিশনের নিকট উপস্থাপন করিতে পারিবে এবং কমিশন, আগ্রহী পক্ষগণকে শুনানী দেওয়ার পর, ট্যারিফ পরিবর্তনের প্রস্তাবসহ সকল তথ্যাদি প্রাপ্তির ৯০ (নব্বই) দিনের মধ্যে আদেশ দিতে হবে’। বিস্তারিত »

আতঙ্কের পরিবেশ, তবু আস্থা মানুষের প্রতি

হায়দার আকবর খান রনো

Dis 2প্রবীণ অর্থনীতিবিদ অধ্যাপক রেহমান সোবহান তার নতুন লেখা ‘ফ্রম টু ইকোনমিকস টু টু নেশনস’ শীর্ষক বইয়ের প্রকাশনী অনুষ্ঠানের বক্তৃতায় স্মৃতিচারণ করতে গিয়ে বলেন, ‘ওই সব দিনে ফিরে গেলে (অর্থাৎ পাকিস্তান আমলে) ভাবি, কিভাবে এসব কথা সেদিন বলতাম। এসব কথা বলার সময় ডানবাম চিন্তা করতাম না।কিন্তু এখন কোনো লেখা লিখতে গেলে এটি প্রকাশের আগে এক সপ্তাহ লেগে যায় এবং পাচ বার পড়ে মত দেন রওনক (তাঁর স্ত্রী)। স্বাধীন দেশের অন্য সবার মতো আমাকে আজকাল প্রতিটি শব্দ নিয়ে ভাবতে হয়। কিন্তু মুক্তিযুদ্ধের সময় এবং পাকিস্তানের শাসনামলে আমরা টেবিলে বসেই দুই ঘন্টায় যে কোনো কিছু লিখতে পারতাম’। বিস্তারিত »

জনমত জরিপে প্রধানমন্ত্রীর কেন কোনো আস্থা নেই

আমীর খসরু

Dis 1ক্ষমতাসীনদের বর্তমান তত্ত্বগত অবস্থান হচ্ছে ‘অল্পস্বল্প গণতন্ত্র এবং একটু বেশি মাত্রার উন্নয়ন’। ক্ষমতাসীনদের অনেক উচ্চ পর্যায়ের নেতাদের পক্ষ থেকে বলা হয়, বেশিমাত্রায় গণতন্ত্রের প্রয়োজন নেই। সবচেয়ে বেশি যা প্রয়োজন তাহলো উন্নয়ন। আর এ কারণে উন্নয়নের নানা ফিরিস্তিও দেয়া হয়। এখন ওই একই বক্তব্য ছোটখাটো নেতাকর্মীদের মুখেও শোনা যায় এবং এটি সম্ভবত সংক্রমিত হয়েছে ক্ষমতাসীনদের সর্বত্র। ক্ষমতাসীনদের পক্ষ থেকে যে প্রচেষ্টাটি জারি রয়েছে, তাহচ্ছে সিঙ্গাপুরের লি কোয়ান ইউ এবং মালয়েশিয়ার মাহাথির মোহাম্মদের সাথে তুলনা করা। বিস্তারিত »

ক্ষমতাসীনদের সব দায়ভার গিনিপিগ জনগণের

শাহাদত হেসেন বাচ্চু

এক.

Coverভূমধ্যসাগর তীরে পড়ে থাকা শিশু আয়লানের নিথর দেহ আরেকবার উন্মোচন করে দিয়েছে ধনবাদী বিশ্বব্যবস্থার কূৎসিৎ চেহারা, পাশাপাশি মেলে ধরেছে পৃথিবীতে মানবতাবাদীর সংখ্যাও নেহাৎ কম নয়। মৃত আয়লান উপড়ে নিয়েছে দেশকালের সীমানা, খুলে দিয়েছে বন্ধ দরোজা তার দেশের অসহায় আশ্রয় প্রার্থী হাজার হাজার শরণার্থীদের জন্য। এখন দেশছাড়া মানুষরা আশ্রয় পাবেন, তারা যেখানে পৌঁছতে চেয়েছিলেন, আপাত: স্বপ্নের দেশে। পেছনে রেখে যাচ্ছেন তাদের স্বজনদের সিরিয়া, ইরাক, লিবিয়া, লেবানন, ইয়ামেনসহ রক্তপাতময় অনিরাপদ এক বিশ্বে, যা মূলত: বিশ্ব মোড়লদের ভাগাভাগির শিকার। বিস্তারিত »