Home » Author Archives: আমাদের বুধবার (page 33)

Author Archives: আমাদের বুধবার

ভীতির মধ্যে বসবাস

আমীর খসরু

Coverভুটানের তৎকালীন রাজা জিগমে সিংগে ওয়াংচুক ১৯৭২ সালে ‘গ্রস ন্যাশনাল হ্যাপিনেস’ (মোট দেশজ শান্তি ও আত্মতুষ্টি)-এর ধারণাটি প্রথম দিয়েছিলেন। তিনি এই ধারণাটি দিয়েছিলেন জনগণ কতোটা সুখ ও তুষ্টি নিয়ে বসবাস করছে এবং তারা কতোটা সন্তুষ্ট তা নির্ধারণের লক্ষ্যে। পরবর্তীকালে তার এই দর্শন বিশ্বব্যাপী স্বীকৃত হয়েছে। ভুটানের রাজার দেয়া এই দর্শনের ভিত্তি হচ্ছে, টেকসই উন্নয়ন, সুশাসন প্রতিষ্ঠা, প্রাকৃতিক সম্পদের যথাযথ ব্যবহার এবং সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য লালন ও প্রসার। এসব ব্যবস্থাবলী গৃহীত হলে মানুষের মধ্যে শান্তি বিরাজিত থাকবে এমনটাই তিনি মনে করতেন। ভুটানের রাজার ওই দর্শনকে কেন্দ্র করে জাতিসংঘের একটি ইনডেক্স আছে, যার মাধ্যমে বিশ্বের কোন কোন দেশের মানুষ কতোটুকু সুখ এবং শান্তিতে জীবনযাপন করছে তা ওই দেশের মানুষের সাথে কথা বলে নির্ধারণ করা হয়ে থাকে। বিস্তারিত »

ভারতের সরকারের সাথে নাগা বিদ্রোহীদের চুক্তি টিকবে তো?

সুবীর ভৌমিক, বিবিসি অনলাইন

অনুবাদ : মোহাম্মদ হাসান শরীফ

Last 1উত্তরপূর্ব নাগাল্যান্ডের বিদ্রোহীরা ২০ লাখ নাগা উপজাতীয় জনগোষ্ঠীর জন্য স্বাধীন আবাসভূমি প্রতিষ্ঠার জন্য ৬০ বছরের বেশি সময় ধরে লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে। দীর্ঘকাল ধরে চলে আসা এই বিদ্রোহীদের দমনে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার নানা ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে। কিন্তু তাতে খুব একটা ফল আসেনি। আর এ কারণেই আবারও ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার নাগা বিদ্রোহীদের একাংশের সাথে একটি চুক্তি সম্পাদন করেছে ৩ আগস্ট। ভারত ইতোপূর্বে দুবার নাগাদের সাথে চুক্তি করা হয়েছিল। বিশ্লেষকরা বলছেন, এখন পর্যন্ত বিদ্রোহটি যুদ্ধবিরতির মাধ্যমে সংযত রাখা হয়েছে। বিস্তারিত »

চীন :: পরাশক্তির বিবর্তন (পর্ব – ২২)

অর্থনীতির নতুন গতি

আনু মুহাম্মদ

Last 2সমাজ ও অর্থনীতির গুরুত্বপূর্ণ সংস্কারের পাশাপাশি বিশাল দেশে পরিবহণ ও যোগাযোগ ব্যবস্থার পুনর্গঠন এবং অর্থনীতির ব্যবস্থাপনা গতিশীল করার জন্য ১৯৫২ পর্যন্ত অনেকগুলো ব্যবস্থা নেয়া হয়, যার ধারাবাহিকতা পরেও অব্যাহত থাকে। চীনের কেন্দ্রীয় ব্যাংক ‘পিপলস ব্যাংক অব চায়না’র কর্তৃত্বে পুরো ব্যাংক ব্যবস্থা জাতীয়করণ করা হয়। উচ্চ মুদ্রাস্ফীতি নিয়ন্ত্রণ করতে মুদ্রাব্যবস্থা একীভূত করা হয়, ঋণ সংকোচন করা হয়, সরকারি ব্যয় কঠোর নিরীক্ষার মধ্যে আনা হয় এবং মুদ্রামান অক্ষণ্ন রাখবার বিষয়ে গুরুত্ব দেয়া হয়। আন্তর্জাতিক ও দেশিয় বাণিজ্য সম্প্রসারণে বিভিন্ন উদ্যোগ নেয়া হয় যার মধ্যে রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠান গঠন অন্যতম। বিস্তারিত »

বামপন্থী রাজনীতির অবস্থা প্রসঙ্গে :: আহমদ ছফা (দ্বিতীয় পর্ব)

জাসদ দলটিকে বামধারার রাজনীতির সঙ্গে এক করে দেখা বোধকরি ঠিক হবে না

Last 3সুবিধাবাদী, আপোষকামী, লাভালাভ বিবেচনায় নীতিবদল এবং এ কারণে মিথ্যাকে সত্য বলে বয়ান করার মানসিকতার একেবারেই বিপক্ষ দলের একজন মানুষ ছিলেন আহমদ ছফা। সত্যকে সত্য বলার, ন্যায়অন্যায় বিবেচনার সূক্ষ্ম বোধবুদ্ধিসম্পন্ন একজন বিরল মানুষ ছিলেন তিনি। সব সময়ই স্পষ্ট এবং অপ্রিয় কথাগুলো তিনি বলতেন নির্দ্ধিধায়, ভয়ভীতিহীনভাবে। দেশ এবং সাধারণ মানুষের প্রতি অসীম ভালোবাসার কারণে রাষ্ট্র ও সমাজের অবিচার, অনাচার এবং বুদ্ধিজীবী নামধারী চাটুকারদের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানো, প্রতিবাদ করার সক্ষমতা, দৃঢ়তা এবং ঋজু চরিত্রের অধিকারী ছিলেন বলেই তিনি হয়ে উঠেছিলেন তার সময়কালের হাতেগোনা দু’চারজনের মধ্যে সবচেয়ে অগ্রগামী। তাঁর জন্ম ১৯৪৩ সালের ৩০ জুন, আর প্রয়ান ২০০১ সালের ২৮ জুলাই। মহান, কৃর্তিমান ও সাহসী আহমদ ছফা’র প্রতি আমাদের অসীম শ্রদ্ধা। এই শ্রদ্ধা জানানোর উদ্দেশ্যেই তার লিখিত প্রাচ্যবিদ্যা প্রকাশনীর ‘সাম্প্রতিক বিবেচনা বুদ্ধিবৃত্তির নতুন বিন্যাস’ বইয়ের অংশ বিশেষ পুনঃপ্রকাশিত হলো।। সম্পাদক বিস্তারিত »

প্রগতিশীল সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক আন্দোলনের গোড়ার কথা (দ্বিতীয় পর্ব)

Last 4প্রথম ও দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের মধ্যবর্তী সময়ে পুঁজিবাদী অর্থনীতিকে মহামন্দায় আক্রান্ত হয়। মহামন্দার কবলে পড়ে বিশ্ব রাজনৈতিকভাবে পর্যুদস্ত হয়ে পড়ে। জনজীবন ভয়াবহ দুঃস্বপ্নের বাস্তবতায় তাড়িত হয়ে পড়ে। সেই সময় নতুন রাজনৈতিক মতবাদ বিশ্ব তথা ভারতীয় উপমহাদেশের কোটি কোটি মানুষের মনে নতুন আশার সঞ্চার করে। রাজনীতিকে শাণিত করে সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ড। অবিভক্ত ভারতের সেই সময়কার একদল সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক কর্মী নতুন মতাদর্শ নিয়ে সংস্কৃতির জগত আলোড়িত করেন। গড়ে তোলেন প্রগ্রেসিভ রাইটার্স অ্যাসোসিয়েশন বা প্রগতিশীল লেখক সংঘ। পুঁজিবাদের বর্তমান বিশ্বায়ন তত্ত্বের ক্লেদাক্ত সময়ে পুনরায় আর একটি মহামন্দার আবহে বর্তমান সাহিত্য ও সংস্কৃতিও নির্জীব। সাহিত্য ও সংস্কৃতির এই অবক্ষয়ের সময়ে নতুন সাহিত্য ও সংস্কৃতি আন্দোলনের ধারাটি কী হওয়া উচিত তা বুঝতে প্রগতিশীল লেখক সংঘের ইতিহাস জানা তাই আবশ্যক। অজয় আশীর্বাদ মহাপ্রশস্তের এই লেখাটির ভাষান্তর করা হলো। বিস্তারিত »

যুক্তরাষ্ট্রের আইএস মোকাবিলা :: ভয়ঙ্কর গর্জন, ছিটেফোটা বর্ষণ

পল ম্যাকলেরি, ফরেন পলিসি

অনুবাদ : আসিফ হাসান

Last 5ইরাক ও সিরিয়ায় ইসলামিক স্টেটের (আইএস) জঙ্গিদের মোকাবিলার জন্য মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ৫০ কোটি ডলার বরাদ্দ রেখেছিল। কথা ছিল সিরিয়ার উদারপন্থী বিদ্রোহীদের মধ্য থেকে কয়েক হাজার সদস্যকে প্রশিক্ষণ দিয়ে আইএসকে তাদের ঘাঁটিতেই মোকাবিলা করা হবে। কিন্তু কাজের কাজ হয়েছে সামান্যই। মার্কিন প্রতিরক্ষামন্ত্রী জানিয়েছেন, এ পর্যন্ত মাত্র ৬০ জনকে প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে।

ইসলামিক স্টেট (আইএস) মোকাবিলায় মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার প্রশাসনের কৌশলটি যুদ্ধক্ষেত্রেই জঙ্গিদের পরাজিত করতে সক্ষম এমন সংখ্যক সিরিয়ার উদারপন্থী বিদ্রোহীকে প্রশিক্ষণ দিয়ে গড়ে তোলার ওপর নির্ভরশীল। এমন পরিকল্পনার কথা শুনে আইএসের মধ্যে মৃত্যুযন্ত্রণা দেখা দেওয়ার কথা। বিস্তারিত »

তেলের অর্থ এবং আন্তর্জাতিক অস্ত্র ব্যবসার নেপথ্যে (দ্বাদশ পর্ব)

বড় ধরনের দুর্নীতিতে বিপজ্জনক সংশ্লিষ্টতা

Last 6অস্ত্র ব্যবসার সাথে তেল সম্পদের অর্থের একটি গভীর সখ্যতা রয়েছে। একটি অপরটিকে টিকিয়ে রাখে। আর পরস্পরের ঘনিষ্ঠ দুই ব্যবসার কুশীলবরা। এই ব্যবসার নেপথ্যে রয়েছে ঘুষ, অর্থ কেলেঙ্কারিসহ নানা ভয়ঙ্কর সব ঘটনাবলী। এরই একটি খন্ডচিত্র প্রকাশ করা হচ্ছে ধারাবাহিকভাবে। প্রভাবশালী দ্য গার্ডিয়ানএর প্রখ্যাত দুই সাংবাদিক ডেভিড লে এবং রাব ইভানসএর প্রতিবেদন প্রকাশের পরে এ নিয়ে বিস্তর আলোড়ন সৃষ্টি হয়েছিল। এ সংখ্যায় ওই প্রতিবেদনের বাংলা অনুবাদের (দ্বাদশ পর্ব) প্রকাশিত হলো। অনুবাদ : জগলুল ফারুক বিস্তারিত »