Home » Author Archives: আমাদের বুধবার (page 48)

Author Archives: আমাদের বুধবার

ঘুরে দাঁড়ানোর শেষ চেষ্টায় বিএনপি ॥ এবার দল পুনর্গঠন

সাঈদ খান

Dis 2সরকার বিরোধী আন্দোলনে দফায় দফায় ব্যর্থ হওয়া এবং দলের চেইন অব কমান্ড ভেঙ্গে পড়ায় সাংগঠনিকভাবে বেশ দুর্বল হয়ে পড়েছে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি। এমন পরিস্থিতি কাটিয়ে উঠতে শেষ চেষ্টা হিসেবে আবার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। ইতিমধ্যেই সংগঠন গোছানোর কাজে বেশ তোড়জোর দিয়ে নেমেছে দলটি। চলছে দলের তৃণমূল থেকে কেন্দ্র পর্যন্ত ঢেলে সাজানোর প্রক্রিয়া। এরই মধ্যে দলের মুখপাত্র, দপ্তর এবং সহসাংগঠনিক সম্পাদক পদে নতুন করে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে তিন সাবেক ছাত্র নেতাকে। বিস্তারিত »

রোহিঙ্গাদের কাতারে কেন বাংলাদেশীরা

আতাহার জামিল

Dis 1মধ্যম আয়ের দেশ হওয়ার স্বপ্ন দেখছে যে বাংলাদেশ, তার মানুষেরা কেন দেশ ছাড়ার জন্য এত মরিয়া হয়ে উঠল? তারা কেন মিয়ানমারের সংখ্যালঘু রোহিঙ্গাদের মতো উত্তাল সাগরে মৃত্যুর ঝুঁকি নিচ্ছেন? এ প্রশ্ন এখন দেশের সব মহলে ঘুরপাক খাচ্ছে। এ প্রশ্ন ছিল সাগরপথে যাওয়া বেশ কয়েকজন বাংলাদেশীর কাছে, যারা বিভিন্ন সময়ে আটক বা উদ্ধার হয়ে থাইল্যান্ডের বিভিন্ন বন্দীশালায় আছেন। বেশিরভাগেরই দাবি, অভাব ও বেকারত্ব ঘুচাতে তারা দেশ ছেড়েছিলেন। সবারই গন্তব্য ছিল মালয়েশিয়া। আশা ছিল সেখানে গেলে কাজ পাবেন, জীবনে স্বচ্ছলতা আসবে। বিস্তারিত »

কেন এই বিএনপিকে দিয়ে হবে না

শাহাদত হোসেন বাচ্চু

coverঅবশেষে হিসেব মেলানোর সময় এসেছে। বিএনপির ভেতরে এখন সেই প্রশ্নটিই প্রকাশ্য হয়েছে, যা গুঞ্জরিত হচ্ছিল জনান্তিকে। শেষতক প্রতিষ্ঠাকালীন মহাসচিব ও সাবেক রাষ্ট্রপতি ডা: বদরুদ্দোজা চৌধুরী এবং রাজনীতির অনেক ঘটনঅঘটন পটিয়সী ব্যারিষ্টার মওদুদ আহমেদ বলেই ফেলেছেন – ‘এই বিএনপি দিয়ে হবে না’। যে কথাটি বলার কথা ছিল ২০০১৬ মেয়াদে, বিএনপির কোন নেতাই তখন বলেননি যে, এই বিএনপি সেই বিএনপি নয়। কারণ বিএনপি তখন রাষ্ট্র ক্ষমতায়। দেশ শাসন করছেন তারেক জিয়া। হাওয়া ভবন তখন ক্ষমতার মূল কেন্দ্রে। এই নেতারাই ব্যস্ত তারেকের চাটুকারিতায় আর স্তাবকতায়। তৎকালীন রাষ্ট্রপতি বি, চৌধুরীকে যখন তারেকের ইচ্ছায় অপসারণ করা হয় তখনও কেউই মুখ খোলেননি। এমনকি দল থেকে বের করে দেবার পরেও না। বিস্তারিত »

উন্নয়ন পরিসংখ্যান রাজনৈতিক স্বার্থে ব্যবহৃত হওয়া কাম্য নয় – মানব পাচার সম্পর্কে ড. হোসেন জিল্লুর রহমান

Rohingya and Bangladeshi migrants who arrived in Indonesia by boat eat as they recover from their journey inside an aid station in Kuala Langsa. হোসেন জিল্লুর রহমান, অর্থনীতিবিদ ও রাজনৈতিক সমাজবিজ্ঞানী। তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা। রাজনৈতিক উন্নয়ন, দারিদ্র্য বিমোচন ও সুশাসন বিষয়ের গবেষক। তিনি পাওয়ার অ্যান্ড পার্টিসিপেশন রিসার্চ সেন্টারের (পিপিআরসি) প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারম্যান। মানব পাচারের কারণ, এর ফলে সৃষ্ট সামাজিক সংকট এবং চলমান উন্নয়ন আলোচনার অসঙ্গতি নিয়ে কথা বলেছেন আমাদের বুধবারএর সঙ্গে।

আমাদের বুধবার : অভিবাসন প্রত্যাশী বাংলাদেশীরা মানব পাচারকারীদের খপ্পরে পরে বিপদসংকুল সমুদ্র পথে মালয়েশিয়ার উদ্দেশ্যে পাড়ি জমানো এবং ফলশ্রুতিতে গণকবরের সন্ধান পাওয়াসহ নানা ঘটনা ঘটছে। এ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য কি? বিস্তারিত »

ধানের দাম বেড়েও ফের কমে গেল ॥ হতাশ চাষীরা

বিশেষ প্রতিনিধি, যশোর থেকে

last 2পশ্চিমের জেলা গুলোতে প্রতি মন ধানের দাম এক’শ টাকা থেকে দেড়’শ টাকা বেড়ে ফের ৫০ টাকা করে কমে গেছে। এতে চাষিদের মধ্যে আবার অস্বস্তি দেখা দিয়েছে। ধানের দাম কমার পাশাপাশি অনেক চালের দামও কেজি প্রতি এক টাকা করে কমেছিল। ভারত থেকে আমদানিকৃত চালের উপর ১০ শতাংশ শুল্ক আরোপের সরকারি ঘোষনার পর ধান চালের বাজার চড়তে শুরু করে। ১০ দিন যেতে না যেতেই ফের দর পতন হয়েছে। জেলা গুলো হচ্ছে, মাগুরা, ঝিনাইদহ, যশোর, চুয়াডাঙ্গা, মেহেরপুর ও কুষ্টিয়া। বিস্তারিত »

চীন :: পরাশক্তির বিবর্তন (পর্ব – ১৮)

পাল্টে দেয়ার কাহিনী :: ফানশেন

আনু মুহাম্মদ

Last 3চীনে বিপ্লবী সরকার ক্ষমতাসীন হবার আগে থেকেই লালফৌজ নিয়ন্ত্রিত বিভিন্ন সোভিয়েত এলাকা বা মুক্তাঞ্চলে ভূমি সংস্কারের কাজ শুরু হয়। ১৯৪৭ সালের শেষদিকে খসড়া কৃষি আইন প্রণয়ন করা হয় এবং তা ঘোষণা করা হয় একই বছরের ২৮ ডিসেম্বর। মুক্তাঞ্চলের বিভিন্ন গ্রামে এই আইন কার্যকর করতে করতে অভিজ্ঞতার মধ্য দিয়ে নানারকম সংযোজন বিয়োজনও চলতে থাকে।

এই আইনের ১ নম্বর ধারায় বলা হয়, সামন্তবাদী ও আধা সামন্তবাদী শোষণমূলক কৃষি ব্যবস্থার চিরসমাপ্তি ঘটানো হবে এবং ‘লাঙল যার জমি তার’ এই নীতি বাস্তবায়ন করা হবে। ২ নম্বর ধারায় বলা হয়, সামন্তপ্রভুদের ভূমি মালিকানার অধিকার বিলুপ্ত করা হবে। ৪ নম্বর ধারায় বলা হয়, সংস্কারের আগে গ্রামের মানুষের ওপর চাপানো সকল ঋণ বাতিল করা হবে। ৬ নম্বর ধারায় বলা হয়, গ্রামে জোতদারের সব জমি গ্রহণ করবে গ্রামের চাষী সমিতি। এই জমিসহ গ্রামের সকল জমি নিয়ে সমিতি গ্রামের সকল মানুষের মধ্যে (নারীপুরুষশিশুবৃদ্ধ) বিতরণ করবে। বিতরণের সময় বেশি উর্বর কম উর্বর বিবেচনা করতে হবে। বিস্তারিত »

‘ময়লা জ্বালানি’র কয়লা বিদ্যুৎ কেন্দ্র কেন নয় : বিকল্প অনুসন্ধান (শেষ পর্ব)

এম. জাকির হোসেন খান

last 4বাংলাদেশ জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে সবচেয়ে ঝুঁকিপূর্ণ দেশ হওয়ায় ভবিষ্যতে প্রাকৃতিক দুর্যোগের সংখ্যা বেড়ে যাওয়ার আশংকা প্রবল। একই সাথে অধিক ঘনবসতিপূর্ণ দেশ হওয়ায় দীর্ঘমেয়াদী লাভক্ষতির বিবেচনায় বাংলাদেশের মানুষের স্বাস্থ্য, পরিবেশ, খাদ্য উৎপাদন, জলজ প্রাণী এবং প্রতিবেশের ওপর কয়লার মতো ময়লা জ্বালানি এবং পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের দুর্ঘটনার দীর্ঘমেয়াদী ক্ষতির প্রভাব বিবেচনায় বিকল্প জ্বালানির উৎস তথা নবায়নযোগ্য জ্বালানিই নিরাপদ এবং সুলভ হওয়ায় বাংলাদেশের ভবিষ্যৎ জ্বালানি চাহিদা যে এ খাত থেকেই মিটবে তা অবধারিত। বিস্তারিত »