Home » Author Archives: আমাদের বুধবার (page 51)

Author Archives: আমাদের বুধবার

ভেস্তে গেছে রূপরেখা প্রনয়ন ॥ দল গোছাচ্ছে বিএনপি

সাঈদ খান

DIS 4উদ্যোগ নিতে নিতেই অঙ্কুরেই বিনষ্ট হয়েছে ‘আগামী নির্বাচন এবং সম্ভাব্য সরকার কাঠামো’ নিয়ে বিএনপি’র রূপরেখা প্রদান কার্যক্রম। দলের ভেঙ্গেপড়া সাংগঠনিক অবস্থা কাটিয়ে দল পূনর্গঠন এবং সংগঠন গোছানোর দিকেই এখন বেশি নজর বিএনপি’র। চলতি বছরের শেষ নাগাদ দলের সাংগঠনিক ৭৫ জেলায় নতুন কমিটি গঠনের পর দলীয় চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া অন্তত ৪২টি জেলা সফর করার পর আবারো আগামীর নতুন আন্দোলন কর্মসূচীর চিন্তা ভাবনা রয়েছে বলে দলের নীতিনির্ধারকরা জানিয়েছেন। এছাড়া বছরের শুরুতেই ৯২ দিনের টানা অবরোধ হরতালে বিভিন্ন মামলার আসামী হয়ে আটক এবং আত্মগোপনে থাকা দলের শীর্ষ এবং জেলা নেতাদের মুক্ত করার ব্যপারেও ভাবছেন তারা। বিস্তারিত »

হারিয়ে গেছে রাজনৈতিক ভারসাম্য :: কারণ অনুসন্ধান (দ্বিতীয় পর্ব)

হায়দার আকবর খান রনো

DIS 3বাংলাদেশের রাজনীতিতে স্থিতিশীলতা কখনই ছিল না। এর জন্য শাসক লুটেরা বুর্জোয়াদের অপরিণামদর্শিতা, স্বল্পবুদ্ধি ও অপরিপক্কতাই দায়ী। শ্রেণী বিশ্লেষণ করলে এই সিদ্ধান্তেই আমরা আসতে পারি। তবে শুধু শ্রেণীর কথা বলে ব্যক্তির অথবা নেতৃত্বের ভূমিকাকে অস্বীকার করা বা খাটো করে দেখা হবে ভুল। সেটা হলো যান্ত্রিক দৃষ্টিভঙ্গি। তাই আজকের এই ভারসাম্যহীন পরিণতির জন্য রাজনৈতিক নেতৃত্বের ভূমিকা কতোটা দায়ী সেটাও স্বতন্ত্রভাবে আলোচনা করা দরকার।

১৯৯০ সাল থেকে ২০১৪ সাল পর্যন্ত ত্রুটিবিচ্যুতি সত্ত্বেও যে রাজনৈতিক ভারসাম্য বজায় ছিল সেটা একেবারেই ভেঙ্গে পড়েছে ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির নির্বাচনের পর থেকে। বিস্তারিত »

মানব পাচারে অসহায় বিপর্যস্ত মানুষ :: তাঁরা কি বাংলাদেশী নন?

আমাদের বুধবার প্রতিবেদন

DIS 2প্রতি বছর সাড়ে চার কোটি মানুষ শরণার্থী হচ্ছে, এর মধ্যে পৌনে তিন কোটিই সীমান্ত অতিক্রম করে অন্য দেশে যাচ্ছে, এদের ৫৫ শতাংশই যুদ্ধের কারণে দেশ ত্যাগ করছে।এছাড়া অন্য কারণগুলো হলো জাতিগত সংঘাত, দারিদ্র্য ও আইএস জঙ্গিদের দৌরাত্ম্য। বিশ্বব্যাপী যুদ্ধবিগ্রহ, জাতিগত সংঘাত এবং দারিদ্র্য বেড়ে যাওয়ার কারণে সাগর কিংবা দুর্গম স্থলপথে মানব পাচার যে কোনো সময়ের তুলনায় বেড়েছে। মধ্যপ্রাচ্য ও আফ্রিকার দেশগুলো থেকেও ইউরোপের নানা দেশে, বিশেষ করে ইতালির উদ্দেশে ঝুঁকিপূর্ণ যাত্রা করছে অভিবাসন প্রত্যাশীরা। অস্ট্রেলিয়াও এ ধরনের সমস্যা মোকাবিলায় হিমশিম খাচ্ছে। বিস্তারিত »

কর্পোরেট ও দলদাস মিডিয়া এবং সালাহউদ্দিনের শিলং যাত্রা

শাহাদত হোসেন বাচ্চু

DIS 1কবিগুরু ভারতবর্ষের অনেক জায়গায় গেলেও ছবির মত সুন্দর শহর শিলংয়ে কখনও যাননি। কেন যাননি, সেটি একটি রহস্য! যেমন রহস্য ঢাকার উত্তরা থেকে নিখোঁজ হওয়ার ৬৩ দিন পরে বিএনপি নেতা সালাহউদ্দিন আহমেদের হঠাৎ করে শিলংয়ে উদয় হওয়া! গুমঅপহরণ কিংবা নিখোঁজের তালিকায় থাকা সালাহউদ্দিন সেই বিরল সৌভাগ্যবানদের একজন যিনি ফিরে এসেছেন! না, তিনি ফিরতে পারেননি স্ত্রীসন্তানের কাছে। তার খোঁজ পাওয়া গেছে বিদেশবিভুঁয়ে, ভারতের শিলংয়ে গলফ মাঠে। শিলং পুলিশ তাকে গ্রেফতার করেছে অবৈধ অনুপ্রবেশের অভিযোগে। বাংলাদেশের একজন রাজনীতিবিদ, সাবেক প্রতিমন্ত্রী ও বিএনপির যুগ্মমহাসচিব সালাহউদ্দিন আহমেদ কেন, কি উদ্দেশ্যে নিখোঁজ হয়ে যাওয়ার ৬৩ দিন পরে প্রতিবেশী দেশে অবৈধ অনুপ্রবেশ করলেন? হাতে একটি পলিথিনের পোটলা, মোজাবিহীন জুতো এবং সাদা শার্ট আর ট্রাউজার পরা সালাহউদ্দিন এত জায়গা থাকতে ঢাকা থেকে শিলংয়ে কেন এতসব রহস্য আর প্রশ্নের জবাব খুব সহসাই মিলছে না। তবে এটুকু বলা যায় যে, তার আপাত নিয়তি নির্ধারিত হয়ে গেছে। বিস্তারিত »

মোদী সরকারের বাংলাদেশ নীতিতে পরিবর্তন

আমীর খসরু

COVERভারতে কংগ্রেস নেতৃত্বাধীন সরকারকে বিশাল ব্যবধানে হারিয়ে বিজেপি সরকারের ক্ষমতা গ্রহণের পর পরই ওই নতুন সরকার পার্শ্ববর্তী দেশগুলোর সাথে সম্পর্কের ব্যাপারে নতুন মনোভাব পোষণ এবং দৃষ্টিভঙ্গি গ্রহণ শুরু করে। অবশ্য এটা যে হঠাৎ করেই ঘটেছে বা স্বয়ংক্রিয়ভাবে হয়েছে তা নয় বরং তারা ক্ষমতায় আসার জন্য দীর্ঘ সময় ধরে যে হোমওয়ার্ক করছিলেন, সে সময়েই তাদের বিদেশ নীতির ব্যাপারে কয়েকটি সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেন। এটি অবশ্য ভারতের ওই সময়ে বিদ্যমান বা বহুদিন ধরে চর্চা ও মান্যকারী নীতির বলতে গেলে ঠিক উল্টোটাই। এর মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রের সাথে বেশ শীতল সম্পর্ক উষ্ণতার মাত্রায় নিয়ে যাওয়া, পাকিস্তানসহ পার্শ্ববর্তী দেশগুলো সাথে সুসম্পর্ক স্থাপন এবং ভারত মহাসাগরকেন্দ্রীক নতুন চিন্তাভাবনা। এটা বললে ভুল হবে না যে, ভারতের ধনীক শ্রেণীর প্রতিনিধি এবং প্রশাসনের একাংশ সরাসরি নতুন এই পথ গ্রহণে আগ্রহী ছিল এবং তাদের উদ্দেশ্য ছিল অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে আরো উদারনীতি গ্রহন, নিত্যনতুন বাজার দখল, ব্যবসাবাণিজ্য বিস্তার এবং বিশ্ব শক্তি হিসেবে সর্বাত্মকভাবে আবির্ভাবের চিন্তা। বিস্তারিত »

‘ময়লা জ্বালানি’র কয়লা বিদ্যুৎ কেন্দ্র কেন নয় (প্রথম পর্ব)

এম. জাকির হোসেন খান

last 1বিশ্ব পরিবেশ সংস্থা’র তথ্য মতে, কয়লার দূষণে বিশ্বে প্রতি বছর প্রায় ৭০ লক্ষ মানুষ মারা যায়। পৃথিবীর সবচেয়ে ‘ময়লা জ্বালানি’ কয়লা অন্য যে কোনো শিল্পের তুলনায় অনেক বেশি ক্ষতিকর পানি দূষণকারী কয়লাভিত্তিক শিল্প প্রতিষ্ঠান। বিশ্বব্যাপী কার্বন নিঃসরণের প্রধান উৎসও কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র। বিভিন্ন গ্যাস যেমন, কার্বন ডাই অক্সাইড, সালফার ডাই অক্সাইড, নাইট্রাস অক্সাইড, সালফার ডাই অক্সাইড এবং সবচেয়ে মারাত্মক এসিড বৃষ্টির জন্য দায়ী কয়লাভিত্তিক এবং পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রসহ তরল জ্বালানি ভিত্তিক শিল্প প্রতিষ্ঠানসমূহ। বাংলাদেশ সরকার রামপাল বা মাতারবাড়িতে তথাকথিত সুপার ক্রিটিক্যাল প্রযুক্তির মাধ্যমে সব ধরনের পরিবেশ দুষণের প্রতিকারের ধূয়া তুললেও, বিশ্বের সবচেয়ে বেশি উন্নত তথা সুপার/আল্ট্রা ক্যাটাগরি প্রযুক্তি জ্ঞান সম্পন্ন যুক্তরাষ্ট্রেও বিষাক্ত পানি দূষণের প্রধান উৎস কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রসমূহ। বিস্তারিত »

দক্ষিণাঞ্চলের কৃষকের মাথায় হাত – সরেজমিন প্রতিবেদন

সাঈদ খান, পিরোজপুর থেকে

last 2এক সময় শস্য ভান্ডার হিসেবে দেশের দক্ষিণাঞ্চলের পরিচিতি থাকলেও এই এলাকার কৃষি ব্যবস্থা এখন ভেঙ্গে পড়ার উপক্রম। এ কারণে স্থানীয় বাজারে চাল, সবজিসহ কৃষিজাত পন্যের আকাল দেখা দিয়েছে। এ এলাকার বাজার এখন দেশের উত্তরপশ্চিমাঞ্চলের উপর নির্ভরশীল হয়ে পড়ছে। আর স্থানীয় কৃষকরা দিন দিন চাষবাসে আগ্রহ হারাচ্ছেন। ফলে বর্তমান রবি মৌসুমেও স্থানীয় বাজারে সবজি চালের দাম ক্রয়সীমার বাইরে চলেযাচ্ছে।

কারণ অনুসন্ধানে দেখা গেছে, উপকূলীয় এ অঞ্চলের ফসলি জমির তুলনায় পানির স্তর নিচে নেমে যাওয়া, সেচ ব্যবস্থায় বেশী খরচ, আর লবনাক্ততার কারণে স্লুইস গেট দিয়ে ফসলি জমিতে মৌসুমি পনির স্বাভাবিক প্রবাহ বন্ধ করে দেয়াই সব চেয়ে বড় অন্তরায় হয়ে দাঁড়িয়েছে। বিস্তারিত »