Home » অডিও

অডিও

সংখ্যালঘু নির্যাতনকারীদের ভোট না দেয়ার ইচ্ছা রয়েছে : রানা দাশগুপ্ত

বাংলাদেশের ধর্মীয় এবং জাতিগত সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের সংগঠন বাংলাদেশ হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ওই নির্বাচনের আগে-পরে সংখ্যালঘুদের নিরাপত্তা নিয়ে গভীর উদ্বেগ এবং শংকা প্রকাশ করছে। ইতোমধ্যে সংখ্যালঘু নির্যাতনকারীদের মনোনয়ন না দেয়ার জন্যও ঐক্য পরিষদ রাজনৈতিক দলগুলোর প্রতি আহবান জানিয়েছিল। কিন্তু ঐক্য পরিষদ বলছে, তাদের ওই আহবানে তেমন একটা সাড়া মেলেনি। হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের মহাসচিব এ্যডভোকেট রানা দাশগুপ্ত আমাদের বুধবার-এর সাথে এক সাক্ষাতকারে জানিয়েছেন যে, সংখ্যালঘু নির্যাতনকারীদের ভোট না দেয়ার ব্যাপারে একটি সম্মিলিত সিদ্ধান্ত গ্রহণের ইচ্ছা তাদের রয়েছে। সাক্ষাতকারে তিনি বলেন, ‘আমরা কারো ভোট ব্যাংক নই।’ আমাদের বুধবার-এর পক্ষ থেকে সাক্ষাতকার নিয়েছেন আমীর খসরু

রাজনীতি এবং নির্বাচনে ব্যবসায়ীদের উত্থান প্রশ্নে নির্বাচন বিশেষজ্ঞ ড. তোফায়েল আহমদ

যতোই দিন যাচ্ছে রাজনীতি এবং নির্বাচনে ব্যবসায়ীদের অংশগ্রহণ ততোই বাড়ছে। রাজনীতি রাজনীতিবিদদের হাতে কিংবা নিয়ন্ত্রণে এখন আর কার্যত নেই। না থেকে তা ক্রমাগতভাবে ব্যবসায়ীদের হাতে চলে গেছে । রাজনীতি এখন ব্যবসায়ী নির্ভর হয়ে পড়েছে। এমনটা জানিয়ে বিভিন্ন গবেষণা সংস্থার  প্রতিবেদনগুলো জানাচ্ছে, ১৯৫৪ সালের নির্বাচনে ব্যবসায়ীদের সংখ্যা ছিল মাত্র দশমিক ৫৪ শতাংশ যা এখন ৮০-৮৫ শতাংশের বেশি। এটি সুস্থ ধারার রাজনীতির প্রতি বড় ধরনের চ্যালেঞ্জ।  নির্বাচন এবং রাজনীতিতে ব্যবসায়ীদের সরাসরি অংশগ্রহণ প্রশ্নে সাক্ষাতকারভিত্তিক বিশ্লেষণ করেছেন বিশিষ্ট নির্বাচন বিশেষজ্ঞ এবং বর্তমানে ব্রিটানিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. তোফায়েল আহমদ। তিনি মনে করেন, রাজনীতি ব্যবসায়ী নির্ভর হয়ে গেলে সৎ, যোগ্য, প্রজ্ঞাবান ব্যক্তিবর্গ রাজনীতি থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়বেন- যার স্পষ্ট আলামত ইতোমধ্যেই দেখা যাচ্ছে। সাক্ষাতকারটি নিয়েছেন- আমীর খসরু