Home » অর্থনীতি (page 13)

অর্থনীতি

নেপাল কি ভারতের হাতছাড়া হয়ে যাচ্ছে

ত্রৈলক্ষ্ম্য আর আড়িয়েল, দ্য রিপাবলিকা থেকে অনুবাদ

Last 2নেপালের নতুন সংবিধানের ব্যাপারে ভারতের প্রতিক্রিয়া এমন যে, ওই দেশটি মনে করছে ‘নেপাল ভারতের হাতছাড়া হয়ে যাচ্ছে। এই প্রতিক্রিয়াটির সাথে আমেরিকার এককালের চীন সম্পর্কে মূল্যায়নের সঙ্গে মিলে যায়। যুক্তরাষ্ট্রের তখন প্রতিক্রিয়াটি ছিল ঠিক ওই ধরনেরই অর্থাৎ চীন হাতছাড়া হচ্ছে।

চেয়ারম্যান মাও সে তুংয়ের নেতৃত্বে চীনের কমিউনিস্ট পার্টি যখন চীনের গৃহযুদ্ধে জয়লাভ করে ১৯৪৯ সালে পিপলস রিপাবলিক অব চায়না গঠিত হয়, তখন আমেরিকানরা বিষয়টিকে ‘চীনকে হারানো’ হিসেবেই দেখেছিল। আমেরিকান কূটনীতিক ও রাজনীতিবিদেরা কমিউনিজমের কাছে চীনকে হারানোর জন্য একে অপরকে দোষারোপও করেন। বিস্তারিত »

শিক্ষা ও শ্রেণী সম্পর্ক (পঞ্চম পর্ব)

ইংলিশ মিডিয়াম থেকে মাদ্রাসা শিক্ষা

হায়দার আকবর খান রনো

Last 5এমন আদর্শ শিক্ষা ব্যবস্থার ঠিক বিপরীতে দাঁড়িয়ে আছে বাংলাদেশের শিক্ষা ব্যবস্থা যদিও জনগণকে ধোকা দেবার জন্য সংবিধানে রাষ্ট্রীয় মূলনীতি হিসাবে সমাজতন্ত্রের উল্লেখ আছে। আসলে আমাদের শিক্ষা ব্যবস্থার মধ্যেই প্রকটভাবে শ্রেণী বৈষম্যের দিকটি প্রতিফলিত। উপরন্তু এই শিক্ষা সম্পূর্ণরূপে আদর্শহীন, পশ্চাৎমুখী ও প্রতিক্রিয়াশীল। শিক্ষা এখন জ্ঞান চর্চার বিষয় নয়। এটি হচ্ছে এখন পণ্য মাত্র, বাণিজ্যিক বস্তু (Product)। ১৯৯০ সালে এরশাদ বিরোধী গণতান্ত্রিক আন্দোলনের সময় সর্বদলীয় ছাত্র ঐক্য যে দশ দফা দাবী পেশ করেছিল তাতে নিম্নোক্ত দাবীটিও ছিল।

শিক্ষা ক্ষেত্রে সরকারী, বেসরকারী, ব্যক্তিমালিকানাধীন, গ্রাম শহরসহ সকল বৈষম্য (ক্যাডেট কলেজ, কিন্ডার গার্টেন, রেসিডেনশিয়াল মডেল স্কুল, প্রি ক্যাডেট, টিউটোরিয়াল হোম, মাদ্রাসা ইত্যাদি) দূর করে সারা দেশে অভিন্ন পাঠ্যক্রম ও পাঠ্যসূচীর ভিত্তিতে একই ধরনের শিক্ষা ব্যবস্থা (One Channel of Education) চালু করতে হবে।” বিস্তারিত »

খাদ্যে ভেজাল বিষয়টি কারও মাথায়ও নেই, ব্যাথাও নেই

আমাদের বুধবার প্রতিবেদন

Dis 5আমরা প্রতিদিন যেসব খাবার গ্রহণ করি তার অর্ধেকেরও বেশি খাবারে মেশানো আছে ভেজাল। সরকারি গবেষণা প্রতিষ্ঠান জনস্বাস্থ্য ইনস্টিটিউট দেড় যুগের তথ্যউপাত্ত বিশ্লেষণ করে বলেছে, ভেজাল ব্যবহার অব্যাহতভাবেই চলছে। বিভিন্ন সরকারি ও সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠান খাদ্যে ভেজাল নিয়ে যেসব পরীক্ষানিরীক্ষা করে তাও চলছে খুবই ধীরগতিতে। তাৎক্ষণিক বা সমসাময়িক পরীক্ষানিরীক্ষার কোনো ব্যবস্থাই এদেশে গড়ে উঠেনি বা উঠতে দেয়া হচ্ছে না। যে কারণে খাদ্যে ভেজাল নিয়ে পরীক্ষানিরীক্ষার যেসব ফলাফল পাওয়া যায় তা অন্তত বছর দু’য়েকের পুরনো। এর ফলে ভেজাল পণ্য প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠানগুলোকে আইনের আওতায় আনা যেমন দুঃসাধ্য হয়, তেমনি ধরা পড়লেও তা নিয়ে যে দীর্ঘমেয়াদী বিচারআচার চলে তা বেশ দীর্ঘ। বিস্তারিত »

বাংলাদেশের জন্য সর্বনাশা ভারতীয় আন্তঃনদী সংযোগ প্রকল্প (প্রথম পর্ব)

হায়দার আকবর খান রনো

Dis 4ভারতের মোদী সরকার সে দেশের আন্তঃনদী সংযোগ প্রকল্পটি দ্রুত সম্পন্ন করার জন্য তাগিদ দিয়েছেন। আন্তঃনদী সংযোগ প্রকল্পের বিষয়টি সাবেক রাষ্ট্রপতি ও বিশিষ্ট বিজ্ঞানী প্রয়াত আবদুল কালামও এই প্রকল্পের ব্যাপারে বিশেষ আগ্রহী ছিলেন। এই আন্তঃনদী প্রকল্প এক বিশাল মহাপ্রকল্প। এক অর্থে তাকে দানবীয় প্রকল্পও বলা যায়। কেন মহান না বলে দানবীয় বলছি, তা নিচে ব্যাখ্যা করা হবে। এই প্রকল্পের মূল বিষয়টি হচ্ছে, উত্তরপূর্ব ভারতের ব্রহ্মপুত্র ও উত্তর ভারতের গঙ্গার পানি সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হবে সুদূর দক্ষিণাত্যে এবং পশ্চিমে রাজস্থানে। এ এক উদ্ভট ও অদ্ভূত প্রকল্প। বিস্তারিত »

শিক্ষা ও শ্রেণী সম্পর্ক (চতুর্থ পর্ব)

বিত্ত ও মুনাফাই একমাত্র আরাধ্য দেবতা

হায়দার আকবর খান রনো

Last-4রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর আমাদের শিক্ষা ব্যবস্থার ঘোর সমালোচক ছিলেন। তিনি বলেছেন, “আমাদের সমস্ত জীবনের শিকড় যেখানে, সেখান থেকে সাত হস্ত দূরে আমাদের শিক্ষার ধারা বর্ষিত হইতেছে। আমরা যে শিক্ষায় আজন্মকাল যাপন করি, সে শিক্ষা কেবল যে আমাদিগকে কেরানীগিরি অথবা কোন একটা ব্যবসায়ের উপযোগী করে মাত্র।” (‘শিক্ষার হেরফের’ রবীন্দ্র রচনাবলী খণ্ড ১২, পৃষ্ঠা ২৮৫, বিশ্বভারতী ১৯৭৩)। রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর আরও বলেছেন, এই শিক্ষা “কেবল ধনোপার্জন এবং বৈষয়িক উন্নতির সাধনেই ব্যস্ত” রাখে। বিস্তারিত »

তেলের অর্থ এবং আন্তর্জাতিক অস্ত্র ব্যবসার নেপথ্যে (সপ্তদশ পর্ব)

অস্ত্র ব্যবসায় ব্রিটেনের দুর্নীতি

Last-5অস্ত্র ব্যবসার সাথে তেল সম্পদের অর্থের একটি গভীর সখ্যতা রয়েছে। একটি অপরটিকে টিকিয়ে রাখে। আর পরস্পরের ঘনিষ্ঠ দুই ব্যবসার কুশীলবরা। এই ব্যবসার নেপথ্যে রয়েছে ঘুষ, অর্থ কেলেঙ্কারিসহ নানা ভয়ঙ্কর সব ঘটনাবলী। এরই একটি খণ্ডচিত্র প্রকাশ করা হচ্ছে ধারাবাহিকভাবে। প্রভাবশালী দ্য গার্ডিয়ানএর প্রখ্যাত দুই সাংবাদিকম ডেভিড লে এবং রাব ইভানসএর প্রতিবেদন প্রকাশের পরে এ নিয়ে বিস্তর আলোড়ন সৃষ্টি হয়েছিল। এ সংখ্যায় ওই প্রতিবেদনের বাংলা অনুবাদের (সপ্তদশ পর্ব) প্রকাশিত হলো। অনুবাদ : জগলুল ফারুক বিস্তারিত »

তেলের দাম যে দেশে বিশ্বে তৃতীয় সর্বোচ্চ

আমাদের বুধবার প্রতিবেদন

Dis 4জ্বালানি তেল বিক্রি করে অস্বাভাবিক মুনাফা করছে সরকার। বিশ্ববাজারে জ্বালানি তেলের দাম এক বছরে অর্ধেকেরও বেশি কমে গেছে। কিন্তু সরকার দেশের মধ্যে সেই তেল বিক্রি করছে আগের বেশী দরেই। পরিসংখ্যানে দেখা গেছে, বাংলাদেশ এখন বিশ্বের তৃতীয় সর্বোচ্চ জ্বালানি তেলের দামের দেশ। অথচ জীবনযাপনের প্রতিটি ক্ষেত্রেই জ্বালানি তেল ব্যবহার করতে হচ্ছে সবাইকে। বিশ্ববাজারে দাম বেড়ে যাওয়ায় দেশে সর্বশেষ জ্বালানি তেলের দাম বাড়ানো হয়েছিল ২০১৩ সালের ৪ জানুয়ারি। এর ফলে পরিবহন ব্যয় থেকে শুরু করে উৎপাদন খাত পর্যন্ত সব ক্ষেত্রেই খরচ বাড়ে ভোক্তা ও উদ্যোক্তাদের। কিন্তু এর প্রায় দুই বছর পর থেকে জ্বালানি তেলের দাম কমলেও দেশের মধ্যে আর কমানো হয়নি। বিস্তারিত »