Home » অর্থনীতি (page 19)

অর্থনীতি

বাংলাদেশ কি কোকেনের ট্রানজিট পয়েন্ট!

মোহাম্মদ হাসান শরীফ

Dis 4বাংলাদেশের পুলিশ জুনের শেষ দিকে চট্টগ্রাম বন্দরে এশিয়ার এ যাবৎকালের বৃহত্তম তরল কোকেনের চালান আটক করেছে। পুলিশ বলছে, চালানটি যাওয়ার কথা ছিল ভারতে। মাদক চক্র দক্ষিণ এশিয়ায় তাদের ব্যবসা বাড়িয়ে চলেছে, এই ঘটনা সেই ইঙ্গিতই দিচ্ছে।

১৪ মিলিয়ন ডলার মূল্যের এই কোকেনের চূড়ান্ত গন্তব্য ভারত ছিল কিনা কিংবা তা এশিয়া বা ইউরোপের অন্য কোনো দেশে পাচারের জন্য ট্রানজিট হিসেবে ব্যবহৃত হতে যাচ্ছিল কিনা তা নিশ্চিতভাবে জানা যায়নি। বিস্তারিত »

সড়ক দুর্ঘটনা :: ওরা শুধুই সংখ্যা

এম. জাকির হোসেন খান

Dis 3ঈদ পূর্ব এবং পরবর্তী যাত্রায় ১৫ জুলাই থেকে ২৫ জুলাই পর্যন্ত মহাসড়কে সংঘটিত প্রায় ২০০ সড়ক দুর্ঘটনায় ২৫০ জন মানুষ নির্মমভাবে নিহত হন। অর্থাৎ প্রতিদিন গড়ে ২৪টি প্রাণ হারিয়ে গেছে। আহত হয়েছে শত শত মানুষ যাদের অনেকেই সারা জীবনের জন্য কর্মক্ষমতা হারিয়ে ফেলেছেন। ঈদযাত্রায় মহাসড়কে প্রাণহানির এ সংখ্যা গত কয়েক বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ। উল্লেখ্য ‘ঈদুল ফিতরের সময় দুর্ঘটনায় ২০১৪ সালে ৬৭ জন, ২০১৩ সালে ৫২ জন, ২০১২ সালে ৪২ জন, ২০১১ সালে ৪৮ জন এবং ২০১০ সালে ৬৩ জন মৃত্যুবরণ করেন’। এরই প্রেক্ষিতে, সরকার মহাসড়কে অটো রিক্সা নিষিদ্ধ ঘোষনা করে এবং যথারীতি মিডিয়া প্রেমিক যোগাযোগ মন্ত্রী নতুন আইন প্রণয়নের মাধ্যমে মহাসড়কে মৃত্যুর মিছিল রোধ করার ‘স্বপ্ন’দেখান। বিস্তারিত »

সড়ক দুর্ঘটনা :: মৃত্যু সংখ্যা চলমান যুদ্ধের চেয়েও বেশি

দুনিয়ার এক একটি দেশে চলমান যুদ্ধ বা গৃহ যুদ্ধে প্রতিদিন যত না মানুষের মৃত্যু হয়, তার চেয়ে আনুপাতিক হারে বেশি মানুষের মৃত্যু হয় আমাদের দেশে শুধুমাত্র সড়ক দুর্ঘটনায়

আমাদের বুধবার প্রতিবেদন

Dis 2সিরাজগঞ্জ, মাদারীপুর, কুমিল্লা ও ফরিদপুরে ঝুঁকিপূর্ণ ২৭১ কিলোমিটার সড়কে গত এক বছরে দুর্ঘটনায় অন্তত ৩৪৬ জন নিহত হয়েছেন। ছোটবড় দুর্ঘটনায় এসব এলাকায় আহতের সংখ্যা প্রায় এক হাজার। মহাসড়কগুলো মৃত্যুফাঁদে পরিণত হয়েছে। এসব সড়ক পরিবহন শ্রমিক ও যাত্রীদের জন্য আতংকের নাম হয়ে দাঁড়িয়েছে। ঝুঁকিপূর্ণ বাঁক, রাস্তা দখল করে হাটবাজার, সরু রাস্তা, মহাসড়কে ধীরগতির ছোট যানবাহন চলাচলসহ আরও কিছু কারণে প্রায়ই দুর্ঘটনা ঘটছে। এছাড়া সড়কের ট্রাফিক অব্যবস্থাপনা ও চালকের বেপরোয়া মনোভাবের কারণে সংবাদ মাধ্যমের খবর অনুযায়ীই গত ২৫ দিনে সারাদেশে অন্তত ৩ শ’ জনের মৃত্যু হয়েছে। স্থানীয়দের মতে, সড়ক দুর্ঘটনা কমিয়ে আনতে প্রশাসন কঠোর অবস্থানে না থাকায় সড়কে মানুষের মৃত্যুর মিছিল প্রতিনিয়ত দীর্ঘ হচ্ছে। বিস্তারিত »

ভারত-যুক্তরাষ্ট্র প্রতিরক্ষা চুক্তির মেয়াদ ১০ বছর বাড়ল

রাহুল বেদি, জেনস ডিফেন্স উইকলি

অনুবাদ : আসিফ হাসান

Last 1ভারত ও যুক্তরাষ্ট্র ৩ জুন তাদের মধ্যকার দ্বিপক্ষীয় প্রতিরক্ষা কাঠামো চুক্তি ১০ বছর বাড়িয়ে ২০২৫ সালের মধ্যভাগ পর্যন্ত করেছে। নয়া দিল্লীতে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষামন্ত্রী অ্যাশটন কার্টার এবং ভারতের প্রতিরক্ষামন্ত্রী মনোহর পরিকরের মধ্যে স্বাক্ষরিত চুক্তিটি ‘উচ্চপর্যায়ের কৌশলগত আলোচনা, উভয় সশস্ত্র বাহিনীর মধ্যে অব্যাহত বিনিময় এবং প্রতিরক্ষা সামর্থ্য জোরদারকরণে’ নতুন দিগন্তের সূচনা করবে। এতে প্রতিরক্ষা প্রযুক্তি ও বাণিজ্য উদ্যোগের (ডিটিটিআই) ‘রূপান্তরমূলক’ প্রকৃতির কথাও স্বীকার করা হয়েছে। দুই পক্ষ এর আওতায় ভারতে মার্কিন সামরিক সরঞ্জামের যৌথ উন্নয়ন ও উৎপাদনে একমত হয়। বিস্তারিত »

বাংলাদেশ-ভারত সীমান্ত কি বধ্যভূমি

Last 2(কুড়িগ্রাম সীমান্তে ২০১১ সালের ৭ জানুয়ারি ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বিএসএফের গুলিতে নিহত বাংলাদেশী কিশোরী ফেলানি খাতুন হত্যা মামলায় অভিযুক্ত বিএসএফ সদস্যকে পুনরায় নির্দোষ বলে ঘোষণা দিয়েছে ওই বাহিনীর নিজস্ব একটি আদালত। ২০১৩ সালে সেনাবাহিনীর কোর্ট মার্শালের মতোই বিএসএফের নিজস্ব আদালতে কঠোর গোপনীয়তা এবং নিরাপত্তার মধ্যে প্রথম দফার ওই বিচার কাজ চলে। ওই রায়ের ব্যাপারে ফেলানির বাবার আপত্তির কারণে ওই একই ধরনের আদালতে পুনরায় বিচার কাজ হয়। ২০১৫’র জুলাইয়ের প্রথম সপ্তাহে ওই আদালতেও প্রথমবারের মতো পুনরায় বিএসএফ সদস্যকে নির্দোষ বলে ঘোষণা করা হয়। ২০১১তে ঘটে যাওয়া ওই মর্মান্তিক ঘটনার পর বাংলাদেশ, ভারত এবং আন্তর্জাতিক পর্যায়ের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান এবং সংগঠনের পক্ষ থেকে তীব্র প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করা হয়েছিল। এসব রায়ের পরে ফেলানির বাবা, যিনি এই হত্যাকাণ্ডের প্রত্যক্ষ সাক্ষী, হতাশা এবং ক্ষোভ প্রকাশ করেন। পুনর্বার এই রায়ের পরে প্রশ্ন তাহলে কাটাতারের বেড়ার উপরে পঞ্চদশী ফেলানিকে হত্যা করলো কে এবং হত্যাকাণ্ডের বিচার কি আর কোনোদিন হবে না? এই প্রশ্নের কোনো মীমাংসা পাওয়া গেল না। ফেলানি নিহত হওয়ার ঘটনাটি আন্তর্জাতিক দুনিয়ায় এমনই প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি করেছিল, যে কারণে মার্কিন প্রভাবশালী সাময়িকী ফরেন পলিসি ২০১১’র জুলাইআগস্ট সংখ্যায় এক অনুসন্ধানী প্রতিবেদন প্রকাশ করে। স্কট কার্নি, জ্যাসন মিকলেইন ও ক্রিসটেইন হোলসারের সেই প্রতিবেদনটির বাংলা ভাষান্তর প্রকাশ করা হলো। সম্পাদক) বিস্তারিত »

তেলের অর্থ এবং আন্তর্জাতিক অস্ত্র ব্যবসার নেপথ্যে (দশম পর্ব)

সৌদি প্রিন্সদের আরও কাহিনী

Last 4অস্ত্র ব্যবসার সাথে তেল সম্পদের অর্থের একটি গভীর সখ্যতা রয়েছে। একটি অপরটিকে টিকিয়ে রাখে। আর পরস্পরের ঘনিষ্ঠ দুই ব্যবসার কুশীলবরা। এই ব্যবসার নেপথ্যে রয়েছে ঘুষ, অর্থ কেলেঙ্কারিসহ নানা ভয়ঙ্কর সব ঘটনাবলী। এরই একটি খন্ডচিত্র প্রকাশ করা হচ্ছে ধারাবাহিকভাবে। প্রভাবশালী দ্য গার্ডিয়ানএর প্রখ্যাত দুই সাংবাদিক ডেভিড লে এবং রাব ইভানসএর প্রতিবেদন প্রকাশের পরে এ নিয়ে বিস্তর আলোড়ন সৃষ্টি হয়েছিল। এ সংখ্যায় ওই প্রতিবেদনের বাংলা অনুবাদের (দশম পর্ব) প্রকাশিত হলো। অনুবাদ : জগলুল ফারুক

যুদ্ধ বিমানের ইঞ্জিন, অস্ত্র এবং ইলেকট্রনিক্সের ব্যবসা করেন যুক্তরাজ্যের এমন অনেক ঠিকাদারই জানিয়েছেন, পণ্য বিক্রি করতে গিয়ে তাদের কমিশন বাবদ বহু অর্থ ব্যয় করতে হয়েছে। বিস্তারিত »

গরু পাচার বন্ধে আবারো ভারতের কঠোরতা

আমাদের বুধবার প্রতিবেদন

Dis 4বাংলাদেশে গরু পাচার বন্ধে নতুন উদ্যোগে নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বাধীন ভারত সরকার সীমান্তজুড়ে ৩০ হাজার সীমান্তরক্ষী (বিএসএফ) মোতায়েন করেছে এবং তারা পাহারা দিচ্ছে কঠোরভাবে। একটা গরুও তারা বাংলাদেশে আসতে দেবে না। লক্ষ্য : বাংলাদেশের মানুষ যাতে গরুর গোশত খেতে না পায়। বিএসএফ সদস্যরা এখন অস্ত্র ছাড়াও লাঠি, দড়ি নিয়ে ধান ক্ষেত, পাট ক্ষেত দিয়ে ছুটছে, কখনো পুকুরে সাঁতার কাটছে।

বাংলাদেশে ভারতীয় গরুর একচেটিয়া বাজার দীর্ঘদিনের। আনুষ্ঠানিক রফতানি বন্ধ থাকায় চোরাচালান ছিল একমাত্র মাধ্যম। হিন্দুস্তান টাইমসের হিসাব মতে সাম্প্রতিক কালে বছরে প্রায় ২০ লাখ গরু ভারত থেকে বাংলাদেশে আসে। বিস্তারিত »