Home » অর্থনীতি (page 40)

অর্থনীতি

ইতিহাস অনুসন্ধান :: যুদ্ধকালের প্রধানমন্ত্রী তাজউদ্দীন আহমেদ

শাহাদত হোসেন বাচ্চু

last 2Tajuddin Ahmed, 46 Prime Minister, a lawyer has been a chief organizer in the Awami League seems its founding in 1949. He is an expert in economics is considered one of the party’s leading intellectual.” (source: Time Magazine’s cover story Bangladesh: Out of War, a nation is born, December 20, 1971)

ছোটখাট, ছিমছাম আপাদমস্তক একজন বাঙালী তাজউদ্দীন আহমেদের স্বল্পকায় কিন্তু গভীর অর্থবহ এই পরিচয়টি টাইম ম্যাগাজিনের প্রচ্ছদ কাহিনীতে লেখা হয়েছিল ১৯৭১ সালের ২০ ডিসেম্বরে। সেখানে তাকে বর্ণনা করা হয়েছিল The Premier of Battle day বা যুদ্ধদিনের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে। বাঙালী জাতির সবচেয়ে গৌরবময় অধ্যায় নয় মাসের মুক্তিযুদ্ধে তিনি সরকার ও যুদ্ধের ময়দানে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন অসামান্য দৃঢ়তা ও সাফল্যের সাথে এবং বাংলাদেশ স্বাধীন হয়েছিল। কোন উপলক্ষই তাঁকে লক্ষ্যবিচ্যুত করতে পারেনি, দল ও দলের বাইরে তাঁর সকল শত্রু বা শত্রুপক্ষের জন্য সেটি ছিল একটি মর্মযাতনার কারণ। বিস্তারিত »

গুজরাট উন্নয়ন মডেল :: যা রটেছে, যা আসলে ঘটেছে

জয়তী ঘোষ, ফ্রন্টলাইন

অনুবাদ: ফাহিম ইবনে সারওয়ার

last 4ভারতে গত এক বছরের সবচেয়ে আলোচিত রাজনৈতিক প্যাকেজ ‘উন্নয়নের গুজরাট মডেল’। এই মডেলের প্রচারণাই নরেন্দ্র মোদিকে ভারতের প্রধানমন্ত্রীর পদে নিয়ে আসার ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ নিয়ামকের ভূমিকা রেখেছে। প্রচারণার মূল কাজটি করেছে গণমাধ্যম। কার্যকরী সরকার ব্যবস্থা এবং ব্যবসাবান্ধব অর্থনৈতিক নীতিমালার জন্য গুজরাট মডেলের ‘সুখ্যাতি’ রয়েছে। মিডিয়ার মাধ্যমে অধিক প্রচারিত উন্নয়নের এই মডেল আসলে কতোটা বাস্তব সেটা কিন্ত ধোয়াশায়ই রয়েছে। মোদি বিরোধীরাও তাদের প্রচারণায় বিজেপিকে কটাক্ষ করার জন্য গুজরাট মডেলকে টেনে এনেছেন। বিশেষ করে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি তো পাল্টা বলেই ফেলেছেন পশ্চিমবঙ্গের উন্নয়ন মডেল গুজরাটের চেয়ে বেশি বাস্তব। গুজরাট শুধুই প্রচারণা সর্বস্ব। বিস্তারিত »

গাজা পুনর্নির্মাণে কত টন সিমেন্ট লাগবে?

ডেভিড কেনার, ফরেন পলিসি

অনুবাদ: মোহাম্মদ হাসান শরীফ

last 5আলআওদা কারখানার দ্বিতীয় তলাটা চটচটে লাল তরলে থকথক করছে। মনে হচ্ছে, এই মাত্র এখানে ভয়ঙ্কর কোনো গণহত্যা ঘটে গেছে। তবে সত্যটা কিছুটা খুশি মনেই বলা যায়, ঘটনাটা তত আতঙ্কজনক নয়। রমজান মাসের জন্য যুদ্ধের আগে এখানে প্লাস্টিকের কার্টুনে ভর্তি করে স্টবেরি জুস জমা করা হয়েছিল। ইসরাইলি ট্যাঙ্কের গোলায় সেগুলোর বর্তমান দশা হয়েছে।

এক মাস আগেও এই কারখানায় ৬০০ লোক কাজ করত। চকোলেট ওয়েফার, বিস্কুট থেকে শুরু করে আইসক্রিমসহ প্রায় ১২৫ ধরনের স্ন্যাকস তৈরি হতো। এখন সবকিছু গোল পাকিয়ে গেছে। বিস্তারিত »

তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধ কি শুরু হয়ে গেছে (দ্বিতীয় পর্ব)

আমেরিকা, তেল এবং মধ্যপ্রাচ্যের যুদ্ধ

মোহাম্মদ হাসান শরীফ

last 6বিশ শতক থেকে মধ্যপ্রাচ্যের তেল বৈশ্বিক শক্তি এবং বৈশ্বিক পুঁজি সমৃদ্ধ করে আসছে। বিশেষ করে যুক্তরাষ্ট্রের জন্য তেলের প্রলোভন ছিল প্রবল। ১৯৩০এর দশকে ক্যালিফোর্নিয়ার স্ট্যান্ডার্ড ওয়েলের ভূতত্ত্ববিদেরা যখন সৌদি আরবের পূর্ব উপকূলে বাণিজ্যিক মানসম্পন্ন তেল আবিষ্কার করলেন, তখন থেকেই এই অঞ্চলের সাথে আমেরিকান রোমাঞ্চের সূচনা। পরবর্তী সময়ে এই মুগ্ধতা রূপান্তরিত হয় আবিষ্টে। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পরপরই স্পষ্ট হয়ে যায়, তেলের গুরুত্ব কেবল শিল্প পণ্য হিসেবে নয়, এটা এর চেয়ে অনেক বেশি মূল্যবান সম্পদ। এই ইতিহাসের সবচেয়ে দৃশ্যমান ও স্মরণীয় ঘটনাটি ঘটে ১৯৪৫ সালের ফেব্রুয়ারিতে মিশরের গ্রেট বিটার লেকে ইউএসএস কুইন্সিতে সৌদি আরবের প্রতিষ্ঠাতা বাদশাহ আবদুল আজিজ ইবনে সৌদের সাথে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ফ্রাঙ্কলিন ডি. রুজভেল্টের বৈঠকে। এই বৈঠকেই মধ্যপ্রাচ্যের তেলের সাথে আমেরিকান নিরাপত্তা স্থায়ীভাবে জড়িয়ে যায়। এর মাধ্যমে বিশ শতকের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ কৌশলগত সম্পর্কও প্রতিষ্ঠিত হয় : সৌদিরা বিশ্ববাজারে সস্তায় তেল সরবরাহ করার মাধ্যমে আমেরিকার নিরাপত্তা ভোগ করবে। বিস্তারিত »

মালয়েশিয়ার সেকেন্ড হোম :: অর্থ পাচারের নয়া কৌশল

আমাদের বুধবার প্রতিবেদন

dis 4প্রায় ৪ হাজার বাংলাদেশীর সেকেন্ড হোমএখন মালয়েশিয়া। মালয়েশিয়া সরকারের ‘মাই সেকেন্ড হোম প্রোগ্রাম’ এর সুযোগ নিয়ে এরই মধ্যে সেদেশে প্লট বা ফ্ল্যাটের মালিক হয়েছেন তারা। এতে দুই বছর আগেও যেখানে মাই সেকেন্ড হোম প্রোগ্রামএ শীর্ষ ১০এর তালিকায় বাংলাদেশের অবস্থান ছিল তৃতীয়, এখন তা এসে দাঁড়িয়েছে দ্বিতীয়তে। মালয়েশিয়ায় প্লটফ্ল্যাট কেনার তালিকায় রয়েছেন বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতা, সাবেক আমলা, সাবেক সেনা কর্মকর্তা, ঊর্ধ্বতন পুলিশ কর্মকর্তা, চিকিৎসক, ব্যবসায়ী, এমনকি শিক্ষকও। ২০০২ সালে বিশেষ কর্মসূচি শুরুর বছরে কোনো বাংলাদেশী এ সুবিধা নেননি। বিস্তারিত »

একমুখী নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থার দাপট

আবীর হাসান

dis 1সরকার যে ‘একমুখী নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থার’ দিকে এগোচ্ছে তা এখন নিশ্চিত হয়ে গেছে। বিষয়টা তাত্ত্বিকভাবে অথরেটারিয়ান বা একনায়কতান্ত্রিক শাসন। বিষয়টিকে অন্যভাবে ব্যাখ্যা করলে দেখা যায়, ক্ষমতা গণতান্ত্রিক বৈচিত্র হারিয়ে প্রথমে একদল কেন্দ্রিক হয়ে দাড়ায় পরবর্তীকালে এক ব্যক্তিকেন্দ্রিক হয়ে ওঠে। এই ব্যাপারটা যখন ঘটে তখনই প্রয়োজন পড়ে একমুখী নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থার। বিশ্বের গণতন্ত্রের ইতিহাস বলছে, বহুমতের, বাকস্বাধীন তার আর আইনি ব্যবস্থার স্বাধীনতাকে খর্ব করেই এই ব্যবস্থাটা প্রতিষ্ঠা করা হয়। বিস্তারিত »

ফুলবাড়ী গণঅভ্যুত্থান :: উন্নয়নের মালিকানা

আনু মুহাম্মদ

last২৬ আগষ্ট ঐতিহাসিক ফুলবাড়ী গণঅভ্যুত্থানের আটবছর পূর্তি হলো। এর স্মরণে এবছরও দেশজুড়ে পালিত হচ্ছে ‘ফুলবাড়ী দিবস’। ২০০৬ সালের এইদিনে পানিসম্পদ, আবাদী জমি ও মানুষ বিনাশী ফুলবাড়ী কয়লা প্রকল্পের বিরুদ্ধে বাঙালি আদিবাসী নারী পুরুষ শিশু বৃদ্ধসহ সকল মানুষের প্রতিবাদ বিশাল আকার নিয়েছিলো। লক্ষ মানুষের শান্তিপূর্ণ সমাবেশ সমাপ্তি ঘোষণার পরও সরকারি বাহিনীর পাইকারি গুলিতে তিনজন তরুণ নিহত হন, গুলিবিদ্ধসহ আহত হন দুই শতাধিক। এরপর পুরো অঞ্চলের নারীপুরুষেরা গণঅভ্যুত্থানের এক অসাধারণ পর্ব তৈরি করেন, সারাদেশে তা ছড়িয়ে পড়ে। এক পর্যায়ে ৩০ আগষ্ট ২০০৬ সরকার জনগণের সাথে চুক্তি স্বাক্ষর করতে বাধ্য হয়। বিস্তারিত »