Home » অর্থনীতি (page 60)

অর্থনীতি

আন্তর্জাতিক অস্ত্র ব্যবসার নেপথ্যে (পর্ব – ৭)

ডেভিড লে এবং রব ইভানস, দি গার্ডিয়ান থেকে

অস্ত্র ব্যবসার দুর্নীতি লুকিয়েছে ব্রিটিশ সরকার

arms tradeঅস্ত্র বিক্রয়ে ঘুষ লেনদেনের সঙ্গে ব্রিটিশ সরকারের সংশ্লিষ্টতার বিষয়টি ধামাচাপা দিয়ে রেখেছিলেন ১৯৭৬৭৯ সময়ের ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী জেমস কালাহান। ১৯৭৫ সালের ৬ জুন ফরাসি জেনারেল পল স্টেনলি একটি বাসের সামনে ঝাঁপিয়ে পড়েন। তথাকথিত লকহিড কেলেঙ্কারির প্রথম বলি তিনিই। এ ঘটনার পরই আন্তর্জাতিক অস্ত্র ব্যবসার ক্ষেত্রে একটি সংস্কার আনার চেষ্টা শুরু হয়। বিদেশে ঘুষ প্রদান বেআইনি ঘোষণা করে যুক্তরাষ্ট্র ফরেন করাল্ট প্র্যাকটিসেস অ্যাক্ট পাস করে। তবে তারপরও ব্রিটিশ সরকার তার দুর্নীতির ঘটনাগুলো কীভাবে লুকিয়ে রাখতে পেয়েছিল সে সম্পর্কে আজ পর্যন্ত কিছুই জানা যায়নি। বিস্তারিত »

তেল-গ্যাস লুট দেশে দেশে

বিশাল দেশ বিপুল সম্পদ আর মৃত্যুর দীর্ঘ মিছিল

ফারুক চৌধুরী

oil-politicsকঙ্গো আয়তনের দিক থেকে বিশাল এক দেশ, বাংলাদেশের প্রায় ১৭ গুণ বড়। এ বিশাল দেশের দুর্দশায় ইতিহাসও বিশাল। দীর্ঘ সে ইতিহাস যেন দখল, লুট, গৃহযুদ্ধ, দুর্নীতি, আততায়ীর দীর্ঘ ছায়া, অভ্যুত্থান, হানাহানি আর এ সবের সঙ্গে থাকা মৃত্যুর মিছিল। দীর্ঘ সে মিছিল। সেই সঙ্গে লাখ লাখ মানুষ বসতচ্যুত। মহামারীও যেন পাল্লা দেয়া এসবের সঙ্গে। তাই গণতান্ত্রিক কঙ্গো প্রজাতন্ত্রের পতাকায় রক্তিম লাল রেখা তার দেশের নাগরিকদের রক্তকেই স্মরণ করে। বিস্তারিত »

কর্জ করে চলছে সরকার

আমাদের বুধবার প্রতিবেদন

government-cartoonব্যাংক থেকে সরকারের ঋণ নেয়ার প্রবণতা বাড়ছে। চলতি অর্থবছরের প্রথম মাস জুলাই শেষে ব্যাংক থেকে সরকার নিট ঋণ নিয়েছে ৮৪ কোটি ৭৩ লাখ টাকা। আর আগস্টের ১৩ তারিখে সে ঋণ ৩ হাজার ৪১৪ কোটি ৫৮ লাখ টাকায় গিয়ে ঠেকেছে। এ হিসাবে মাত্র ১৩ দিনে সরকার ব্যাংক থেকে ঋণ নিয়েছে ৩ হাজার ৩২৯ কোটি ৮৫ লাখ টাকা। বাংলাদেশ ব্যাংকের হালনাগাদ প্রতিবেদনে দেখা গেছে, ২০১৩১৪ অর্থবছরের ১ জুলাই থেকে ১৩ আগস্ট পর্যন্ত সরকার বাণিজ্যিক ব্যাংক থেকে ঋণ নিয়েছে ৪ হাজার ৩৩৩ কোটি ৯৭ লাখ টাকা। বিস্তারিত »

আন্তর্জাতিক অস্ত্র ব্যবসার নেপথ্যে (পর্ব – ৬)

ডেভিড লে এবং রব ইভানস, দি গার্ডিয়ান থেকে

আল ইয়ামামা চুক্তির অজানা কথা

arms tradeঅক্সফোর্ড শায়ারের গ্লিম্পটন গ্রাম। আল ইয়ামামা অস্ত্র ক্রয় চুক্তিটি সম্পাদন করার পর পরই যুবরাজ বন্দর এখানকার ২০০০ একর আয়তনের এই ম্যানয় হাউজ ও খেলাধূলার এস্টেটটি কিনে নেন। প্রথম দর্শনে গ্লিম্পটনকে ইংল্যান্ডের আর দশটা গ্রামের মতো একটি গ্রাম বলেই মনে হয়। তবে পুরো কটমওল্ডস হ্যামলেট এবং এর আশপাশ এলাকার ৮১০ হেক্টর আয়তনের খেলাধূলার এ এস্টেটটির মাালিক একজন সৌদি ধনকুবের। সৌদি প্রতিরক্ষামন্ত্রী যুবরাজ সুলতানের পুত্র যুবরাজ বন্দর ব্রিটেনের সঙ্গে সর্ববৃহৎ অস্ত্র কেনাবেচা চুক্তিটি সম্পাদনের মাধ্যমে প্রাপ্ত অর্থ দিয়ে গ্লিম্পটন গ্রামটি কিনে নেন। তিনি তার ম্যানসনের সীমানা প্রাচীরের ভেতরে পুরোপুরি ইংরেজি কেতায় একটি পাব নির্মাণ করেন বন্ধু বান্ধবদের নিয়ে আমোদ ফুর্তি করার জন্য। বিস্তারিত »

তেল – গ্যাস লুট দেশে দেশে

দুর্দশা ক্ষতি নারী আর পরিবেশের

ফারুক চৌধুরী

oilনাইজেরিয়া আর তেল নিয়ে আলোচনায় যুবকদের প্রসঙ্গ বার বার আসে। জাতিসংঘ উন্নয়ন কর্মসূচির নাইজার বদ্বীপ অঞ্চল সংক্রান্ত মানব উন্নয়ন প্রতিবেদনেও প্রসঙ্গটি এসেছে, যা ইতোমধ্যেই উল্লিখিত হয়েছে।

এ প্রতিবেদনে নারীদের প্রসঙ্গটিও স্থান পায়। এতে বলা হয় তেল সমৃদ্ধ নাইজার বদ্বীপ অঞ্চলে দারিদ্র্যের বোঝা বেমি বইতে হয় নারীদের। এ বোঝা সবচেয়ে আগে এসে পড়ে তাদেরই ওপর। চাকরি, স্বাস্থ্য, পানি, শিক্ষা, পরিবেশ, নানান ক্ষেত্রে যা কিছু সমস্যা, অপ্রাপ্তি, সঙ্কট, টানাটানি, অভাব সবই আগে চাপে নারীদের ঘাড়ে। বঞ্চনার এত ব্যাপকতা, বিস্তৃতি, গভীরতা তাদের জড়িয়ে ফেলে সংঘাতে। বিস্তারিত »

আন্তর্জাতিক অস্ত্র ব্যবসার নেপথ্যে (পর্ব – ৫)

ডেভিড লে এবং রব ইভানস, দি গার্ডিয়ান থেকে

arms tradeসৌদি আরবে বিএই’র কর্মকাণ্ড : বিএই সৌদি রাজপরিবারের সঙ্গে বড় আকারের তিনটি চুক্তি করেছিল। এ চুক্তি তিনটির কারণেই ব্রিটেনের একমাত্র যুদ্ধবিমান প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠানটি ষাট ও সত্তরের দশক জুড়ে লাভজনক প্রতিষ্ঠান হিসেবে টিকে থাকতে পেরেছিল। প্রাপ্ত নথি থেকে বোঝা যায়, সব চুক্তিতেই দুর্নীতির আশ্রয় নেয়া হয়েছিল। মার্কিনিরা এ ব্যাপারে শুরুতেই সতর্কবাণী উচ্চারণ করেছিল। তাদের মতে, অস্ত্রের জন্য সৌদিদের অনুরোধ তাদের জাতীয় স্বার্থের বিবেচনায় ছিল না। বরং এক্ষেত্রে ব্যক্তিগত চাপই প্রধান নিয়ামক হিসেবে কাজ করেছে এবং যারা এ চাপ সৃষ্টি করেছে তারা অস্ত্র ক্রয় থেকে আর্থিকভাবে লাভবান হয়েছে। মার্কিন এবং ব্রিটিশ উভয়েরই উচিত সৌদিদের মধ্যে ক্ষুধা জন্ম দেয়ার এ কৃত্রিম পদ্ধতিটি একটু সংযত হয়ে ব্যবহার করা। বিস্তারিত »

তেল – গ্যাস লুট দেশে দেশে

তেলের সঙ্গে গ্যাসও যেন উৎপাত

ফারুক চৌধুরী

oil and gasনাইজেরিয়ায় তেলের বা তেল নিয়ে নানা কর্মকাণ্ডের কথা এলে গ্যাসের প্রসঙ্গও আসে, যেমন কান টানলে আসে মাথা। নাইজেরিয়ার তেল সমৃদ্ধ নাইজার বদ্বীপ অঞ্চল সম্পর্কে জাতিসংঘ উন্নয়ন কর্মসূচির মানব উন্নয়ন সংক্রান্ত এক প্রতিবেদনের একটি অংশে উল্লেখ করা হয় গ্যাস বেরিয়ে পড়া ও গ্যাস পুড়ে তৈরি আগুনের লেলিহান শিখার প্রসঙ্গটি। এতে বলা হয়, নাইজার অঞ্চলে ভূমির ছিদ্র দিয়ে গ্যাস বেরিয়ে পড়ে, এমন প্রমাণ রয়েছে। সে অঞ্চলের কোনো কোনো জলাভূমিতে বুদ্বুদ দেখা যায়, অর্থাৎ এর আবার আরেকটি অর্থ রয়েছে। সেটা হচ্ছে হাইড্রোকার্বনহয় তো পানিতে থাকা প্রাণে প্রতিক্রিয়া তৈরি করছে, তার পরে তা বেরিয়ে আসছে বায়ুমন্ডলে। বেরিয়ে আসা ও বায়ুমন্ডপে মিশে যাওয়া হাইড্রোকার্বনের পরিমাণ অজানা। বিস্তারিত »