Home » মতামত (page 11)

মতামত

ছাত্ররাজনীতিতে মরুকরণ :: প্রয়োজন ছাত্র সংসদ নির্বাচন

খুজিস্তা নূর ই নাহরীন মুন্নি

dis 5মূল্যবোধহীন অবক্ষয়ের শেষ তলানিতে আজ দেশের ছাত্ররাজনীতি। এই ছাত্ররাজনীতি নতুন প্রজন্মের সামনে কোন উদাহরণ ও আদর্শের পথ তৈরি করতে পারছে না। আলোর পথ দেখাতে পারছে না। এক অন্ধকার বিভীষিকাময় পরিস্থিতি হাজির করছে। যেমন করে বাহান্নর ভাষা আন্দোলন থেকে মহান স্বাধীনতা সংগ্রাম ও সুমহান মুক্তিযুদ্ধের রক্তাক্ত সিড়িপথে নব্বইয়ের গণঅভ্যুত্থানে ছাত্ররাজনীতি গৌরবের ইতিহাসের ধারাবাহিকতা বজায় রেখেছিল তা আজ তিরোহিত। ছাত্ররাজনীতিতে গৌরবময় অধ্যায়ে পূর্বসুরিরা নেতাকর্মীদের নিয়ে বুকের ভেতর আদর্শবোধ লালন করে, মেধা ও মননশীলতার বিকাশ ঘটিয়ে নেতৃত্বের মহিমায়ই উদ্ভাসিত হননি, ইতিহাসের বাঁকে বাঁকে গৌরবের মুকুট পরে মর্যাদার মাইলফলক স্থাপন করেছিলেন। বিস্তারিত »

সৃজনশীল শিক্ষা উচ্ছেদে সৃজনশীল কৌশল

ফারুক আহমেদ

dis 5বাংলাদেশে যতগুলো শিক্ষানীতি প্রণীত হয়েছে তার মধ্যে সবচেয়ে বেশি বাগাড়ম্বর এবং সবচেয়ে বেশি ঢাকঢোল পেটানো হয়েছে ২০০৯ সালে ক্ষমতাসীন মহাজোটের নামে আওয়ামী লীগের শিক্ষানীতি প্রণয়নে। এ শিক্ষানীতির ঢাকঢোলের আওয়াজ যত বেশি তার চেয়েও অনেক বেশি কঠিন এর সৃজনশীল মোড়ক। এ মোড়কের নির্মাণ কৌশল সৃজনশীলতায় এমনই সুদৃঢ় তা যে কোনো কৌশলকেও হার মানায়। এ কৌশলে বাংলাদেশের বহু জ্ঞানীগুণী এমনভাবে ধরাশায়ী হলেন যে, শিক্ষানীতির কৌশলী প্রশ্নে ধরাশায়ী জ্ঞানীগুণীগণ এখনও সম্বিৎ ফিরে পেয়ে ধরা থেকে উঠতেই পারলেন না। গুণীদের মাথা ঘোলা করা সেই প্রশ্ন হলোআপনি কি সৃজনশীলের পক্ষে নন? বিস্তারিত »

তেল গ্যাস বিদ্যুতের দামবৃদ্ধি কার স্বার্থে?

আনু মুহাম্মদ

last 1সকল যুক্তি তথ্য জনমত অগ্রাহ্য করে সরকার বারবার গ্যাস, তেল, বিদ্যুতের দাম বাড়িয়েই যাচ্ছে। বিশ্ববাজারে তেলের দাম কমছে, দেশের জাতীয় গ্যাস বিতরণ সংস্থাগুলো মুনাফা করছে তারপরও আরেক দফা গ্যাস ও বিদ্যুতের দামবৃদ্ধির আয়োজন চলছে। এই দামবৃদ্ধির পক্ষে আছে বিশ্বব্যাংক, আইএমএফ আর বিদ্যুৎ ও জ্বালানী খাত দখলে নিতে তৎপর দেশি বিদেশি গোষ্ঠী। আর বিপক্ষে সর্বস্তরের মানুষ।

২০০৮ সালে জনগণের কাছ থেকে ভোট নেবার সময় সরকারের যেসব প্রতিশ্রুতি ছিলো সেগুলোর কোনটিতেই সরকারের দক্ষতার পরিচয় পাওয়া যায়নি। আগের সরকারের ধারাবাহিকতায় দুর্নীতি, দখল ক্রসফায়ার, গুম খুন সন্ত্রাস ঠিকই চলছে শুধু নয়, আরও বেড়েছে। বিস্তারিত »

উত্তাল ষাটের দশক (অষ্টম পর্ব)

পূর্ব পাকিস্তান ছাত্র ইউনিয়ন ভাঙ্গার ইতিহাস

হায়দার আকবর খান রনো

last 2ষাটের দশকের মাঝামাঝির দিকে আত্মগোপনকারী কমিউনিস্ট পার্টি দ্বিধাবিভক্ত হয়েছিল। সোভিয়েত ও চীন পার্টির মতাদর্শগত মহাবিতর্ক (পলেমিকস)-এর প্রভাবে আন্তর্জাতিক কমিউনিস্ট আন্দোলন বিভক্ত হয়েছিল। তারই প্রভাবে দেশে দেশে কমিউনিস্ট পার্টিও বিভক্ত হলো। ভারতের কমিউনিস্ট পার্টি বিভক্ত হয়েছিল ১৯৬৪ সালে। পূর্ব পাকিস্তানের কমিউনিস্ট পার্টি বিভক্ত হয়েছিল ১৯৬৬ সালে। কথিত মস্কোপন্থী কমিউনিস্ট পার্টি যাকে আমরা বলতাম সংশোধনবাদী পার্টি, তার সাধারণ সম্পাদক ছিলেন কমরেড মনি সিংহ। এছাড়াও নেতৃত্বের মধ্যে গুরুত্বপূর্ণ কমরেডগণ ছিলেন খোকা রায়, রবীন দত্ত, অনিল মুখার্জি প্রমুখ। বিস্তারিত »

শিক্ষার মান এবং সরকারের পরীক্ষার ফলাফল বিজয়

ফারুক আহমেদ

dis 4২০০৯ সালে আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন মহাজোট সরকার গঠনের পর শিক্ষানীতি প্রণয়ন কাজ শুরু করেছিল। ২০১০ সালে তারা একটি শিক্ষানীতি প্রণয়ন করে। তাদের প্রণীত ওই নীতির মধ্যে বিরাজমান শিক্ষা ব্যবস্থার সঙ্কট নিয়ে সৃষ্ট নানাবিধ জটিলতা বা এ জাতীয় বিষয়াবলীর কোন কিছুকেই কার্যত ¯পর্শ করা হয়নি। কিন্তু সরকার এবং শিক্ষামন্ত্রণালয় শিক্ষার গুণগত মান বিশেষভাবে তুলে ধরে। এর জন্য টিচিং কোয়ালিটি ইমপ্রুভমেন্ট ইন সেকেন্ডারি এডুকেশন (টিকিইআই) নামক একটি প্রকল্পও গ্রহন করা হয়। ২০১১ সালে এই প্রকল্প থেকে জনগণের অর্থ ব্যয় করে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদের নামে – ‘শিক্ষাব্যবস্থার পরিবর্তন এসেছে, মান বৃদ্ধির প্রক্রিয়া জোরদার হচ্ছে’ নামক একটি ছোট কিন্তু ব্যয়বহুল বই প্রকাশ করা হয়। বিস্তারিত »

ক্ষতিকর বিটি বেগুন নিয়ে এতো তাড়াহুড়া কেন

কৃষক পর্যায়ে ব্যর্থ হয়েও চাষ সম্প্রসারণ ঘোষণা

ফরিদা আখতার

last 1বাংলাদেশে বিটিবেগুন (জেনেটিকালী মডিফাইড) কৃষক পর্যায়ে চাষের জন্যে গত ২২ জানুয়ারি চারা দিয়ে এবং নিবিড়ভাবে তত্ত্বাবধান করে বিফল হয়েও সরকার আরো ১০০ জন কৃষকের মাধ্যমে চাষ করাবার ঘোষণা দিয়েছে ৭ সেপ্টেম্বর। এবং যারা কৃষকের অধিকার ক্ষুন্ন হওয়া ও পরিবেশ ঝুঁকি ও ভোক্তাদের স্বাস্থ্য ঝুঁকির কথা বলছেন তাদের বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালানো হচ্ছে। নিজেদের বিফলতা ঢাকবার জন্যে অন্যের কথা বলার অধিকার ক্ষুন্ন করা গণতান্ত্রিক দেশের সরকারের আচরণ হিসেবে গ্রহণযোগ্য হতে পারে না।

গত ৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৪ বাংলাদশে কৃষি গবেষণা প্রতিষ্ঠান (BARI) পাঁচটি জেলার ২০ জন বিটি বেগুন চাষীদের মধ্যে ১৬জনকে ঢাকায় এনে বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা পরিষদে (BARC) একটি সংবাদ সম্মেলন করে ঘোষণা দিয়েছে বিটি বেগুনের কোন ক্ষতি নেই। বিস্তারিত »

ফুলবাড়ী গণঅভ্যুত্থান :: উন্নয়নের মালিকানা

আনু মুহাম্মদ

last২৬ আগষ্ট ঐতিহাসিক ফুলবাড়ী গণঅভ্যুত্থানের আটবছর পূর্তি হলো। এর স্মরণে এবছরও দেশজুড়ে পালিত হচ্ছে ‘ফুলবাড়ী দিবস’। ২০০৬ সালের এইদিনে পানিসম্পদ, আবাদী জমি ও মানুষ বিনাশী ফুলবাড়ী কয়লা প্রকল্পের বিরুদ্ধে বাঙালি আদিবাসী নারী পুরুষ শিশু বৃদ্ধসহ সকল মানুষের প্রতিবাদ বিশাল আকার নিয়েছিলো। লক্ষ মানুষের শান্তিপূর্ণ সমাবেশ সমাপ্তি ঘোষণার পরও সরকারি বাহিনীর পাইকারি গুলিতে তিনজন তরুণ নিহত হন, গুলিবিদ্ধসহ আহত হন দুই শতাধিক। এরপর পুরো অঞ্চলের নারীপুরুষেরা গণঅভ্যুত্থানের এক অসাধারণ পর্ব তৈরি করেন, সারাদেশে তা ছড়িয়ে পড়ে। এক পর্যায়ে ৩০ আগষ্ট ২০০৬ সরকার জনগণের সাথে চুক্তি স্বাক্ষর করতে বাধ্য হয়। বিস্তারিত »