Home » মতামত (page 23)

মতামত

জনগণের প্রতিক্রিয়া – হানাহানি থেকে রেহাই মিলবে কবে?

আমাদের বুধবার প্রতিবেদন

hortal-2-সাংঘর্ষিক রাজনীতি তো লেগেই ছিল। এর উপরে সাম্প্রতিককালে হিংসাহানাহানি, রক্তারক্তি পরিস্থিতির কারণে সাধারণ মানুষ এখন আতঙ্কের শেষ সীমানায় পৌছে গেছেন। জনমনে স্বাভাবিক অবস্থা ফিরে আসবে এমন কোনো সুসংবাদ কেউই দিতে পারছেন না। প্রতিদিনই সহিংসতা বাড়ছে। সৃষ্ট সংকট সমাধানে সরকারবিরোধী দলের কার্যকর উদ্যোগও লক্ষ্য করা যাচ্ছে না। টানা হরতালজ্বালাওপোড়াও, গুলিতে সাধারণ মানুষ ও পুলিশ নিহত হওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে সাধারণ মানুষ কি ভাবছেন আমাদের বুধবারএর কাছে তা তুলে ধরেছেন তাদেরই কয়েকজন। বিস্তারিত »

এই নৈরাজ্যের অবসান হবে কিভাবে?

আনু মুহাম্মদ

Anu_Mohammad-2একটি ভয়ংকর অনিশ্চয়তা বা নিরাপত্তাহীনতার দিকে এগিয়ে যাচ্ছি আমরা। মনে হচ্ছে এই পরিস্থিতি কারও ঠেকানোর উপায় নেই। বড় দলগুলো দেশকে নৈরাজ্য আর সহিংসতায় ডুবিয়ে দিতে বদ্ধপরিকর। প্রতিটি মানুষ দিনযাপন করছেন আতংকের মধ্যে। সবচেয়ে বড় বিপদজনক বিষয় হলো, দিনশেষে কোনো আলোর দিশা পাওয়া যাচ্ছে না। কেউ বলতে পারছে না এই নৈরাজ্যের অবসান হবে কবে, কীভাবে? বিস্তারিত »

পুঁজিবাদের একটি ভুতুরে গল্প (দ্বিতীয় কিস্তি)

কর্পোরেট সংবাদ মাধ্যম, ড্যাম নির্মাণ আর দমনের কলাকৌশল

অরুন্ধতী রায়

অনুবাদ: মোহাম্মদ হাসান শরীফ

arundhati-2ব্যাপক বিদ্রোহ ও যুদ্ধের কারণেই কেবল আমরা মধ্য ভারতের প্রতিবেশগত ও সামাজিক পুনঃগঠনের বিষয়টি জানতে পারছি। সরকার কোনো তথ্য দেয়নি। সমঝোতা স্মারকগুলোর সবই গোপন রাখা হয়েছে। মিডিয়ার কিছু কিছু অংশ মধ্য ভারতে যা কিছু ঘটছে, সে স¤পর্কে লোকজনকে অবগত করছে। তবে ভারতীয় গণমাধ্যমের বেশির ভাগই এ কারণে দুর্বল যে, এর আয়ের প্রধান অংশটি আসে করপোরেট বিজ্ঞাপন থেকে। এটাও যদি যথেষ্ট খারাপ বিবেচিত না হয়ে থাকে, তবে তার চেয়েও কঠিন খবর হলো মিডিয়া ও বৃহৎ ব্যবসায়ের মধ্যকার রেখাটি বিপজ্জনকভাবে অস্পষ্ট হতে শুরু করেছে। আমরা দেখেছি, আরআইএল প্রকৃতপক্ষে ২৭টি টিভি চ্যানেলের মালিক। তবে বিপরীতটাও সত্য। বিস্তারিত »

নারী নির্যাতন মহামারীর মতো ছড়িয়ে পড়ছে

৮ মার্চ আন্তর্জাতিক নারী দিবস। নারী দিবসে আমাদের বুধবারএর বিশেষ প্রতিবেদন

ফরিদা আখতার

women_day-1-বাংলাদেশে রাজনৈতিক সহিংসতা বেড়েছে বলে আমরা অনেকেই আতঙ্কিত হচ্ছি, কিন্তু হঠাৎ করে যেন নারী নির্যাতন সহিংসভাবেই বেড়ে গেছে। সংক্রামক রোগ যেমন ছড়ায় তেমনি নারী নির্যাতনও এখন মহামারী রোগের মতো ছড়িয়ে গেছে।এই মহামারীতে নারীরা ধর্ষিত হচ্ছেন, তাদের মেরেও ফেলা হচ্ছে অনেক ক্ষেত্রে, না হলে তাদের ছুঁড়ে ফেলে দেওয়া হচ্ছে চলন্ত কোন পরিবহন থেকে। একটি ঘটনা ঘটলে এবং তার প্রতিবাদ হলে আবার একই কায়দায় অন্য এলাকায়ও ঘটছে। পত্রিকায় ছাপা হওয়া বর্ণনা যেন পথ বাতলে দিচ্ছে পরবর্তী ঘটনা কেমন করে ঘটবে। একটি খারাপ প্রতিক্রিয়া হচ্ছে যে এই ভয়াবহ ঘটনা পাঠকের গাসওয়া হয়ে যাচ্ছে। শিরোনাম দেখে বাকী খবর কেউ পড়ছে না। বিস্তারিত »

পুনর্বাসন আঁতাত এবং জামায়াতের সহিংসতা

হায়দার আকবর খান রনো

Paltan_Clash-1-বাংলাদেশের রাজনৈতিক পরিস্থিতি যে নতুন দিকে মোড় নিতে চলেছে, সে ব্যাপারে বোধ হয় কোন বিশ্লেষক দ্বিমত করবেন না। সাঈদীর ফাঁসির রায় ঘোষিত হওয়ার পর থেকেই শুরু হয়েছে জামায়াত নামক স্বাধীনতাবিরোধী দলটির ব্যাপক, ভয়ঙ্কর, সহিংস তৎপরতা। প্রতিদিন মানুষ মরছে। থানা পুলিশ আক্রমণ করছে। চরম নৈরাজ্য সৃষ্টি করে চলেছে। পুলিশকে যেন অসহায় মনে হচ্ছে। এর আগেও দেখেছি যে, র‌্যাবপুলিশ, শ্রমিক, শিক্ষক বিএনপি অথবা বামদলের প্রতি চরম মারমুখী ছিল, সেই পুলিশই আবার বসে বসে মার খাচ্ছিল, জামায়াতশিবিরের হাতে। তখনই সন্দেহ হয়েছিল, কোন রকম গোপন সমঝোতা হয়েছে কি? বিস্তারিত »

যুদ্ধাপরাধীর বিচার ও শাহবাগ গণজাগরণ – ৩

আনু মুহাম্মদ

shahbagh-movement-1গত কিছুদিন অসংখ্য মানুষ এইদেশে বিনিদ্র আতংকিত দিনরাত পার করছেন। সাম্প্রদায়িক হামলা, গণপরিবহণে আগুন ছাড়াও, বিভিন্ন সংবাদসূত্র অনুযায়ী, গত কয়েকদিনে বাংলাদেশের বিভিন্ন অঞ্চলে নিহত হয়েছেন নারীপুরুষ সহ প্রায় একশজন মানুষ। এদের মধ্যে ৬ জন পুলিশ সদস্যও আছেন। নিহত এই মানুষদের সম্পর্কে, কিংবা ঘটনা সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য কোনো পত্রিকাতেই না পেলেও যতটুকু জেনেছি তাতে এই নিহত মানুষদের অধিকাংশই গ্রামশহরের গরীব মানুষ। এটাই হয় সবসময়। গার্মেন্টস এ আগুন, লঞ্চডুবি, বস্তিতে আগুন আর বাস দুর্ঘটনাতেই শুধূ নয় যে কোনো রাজনৈতিক সহিংসতার শিকারও তাঁরাই হন। নানা কারণে, নানা প্রভাবে, নানা বুঝ থেকে তাঁরা যাদের পেছনে দাঁড়ান, সেই ক্ষমতাবানরা এই জনগোষ্ঠীকে ব্যবহার করেন নিজেদের ক্ষমতা ও প্রভাব বৃদ্ধির জন্য। বিস্তারিত »

সরকার কি আসলেই পরিস্থিতি সামাল দিতে চায়?

আমীর খসরু

bd-situation-2-সংঘাত, সংঘর্ষ, রক্তপাতে দেশ এখন এক কঠিন সঙ্কটের মধ্যে। সঙ্কটটি এতই প্রকট এবং গভীর যে, দেশের মানুষ আতঙ্কিত, উদ্বিগ্ন। আতঙ্কিত তার নিজের, পরিবারপরিজনসহ নিকটজনের জীবনের স্বাভাবিক নিরাপত্তার কথা ভেবে। আর উদ্বিগ্ন এ কারণে, যে অবস্থা চলছে এবং দিনে দিনে যার অবনতি হচ্ছে, তাতে দেশের ভবিষ্যত, গণতন্ত্রের উপরে সাময়িক ও দীর্ঘস্থায়ী প্রতিক্রিয়া, ব্যবসাবাণিজ্যএক কথায়, অনিশ্চিত গন্তব্যের কথা ভেবে। এ তো গেল দেশের অভ্যন্তরে আমরা যারা আছি, তাদের মনের, মনোজগতের এক মহাসঙ্কটের কথা। এমনিতেই বাংলাদেশের জনগণ নানাবিধ সমস্যা, সঙ্কট মোকাবেলা করে থাকে নিত্যদিন। এর উপরে এই যে বাড়তি দুশ্চিন্তা এবং উদ্বেগ, তা সারাদেশের মানুষকে বড় সঙ্কটে ফেলেছে, পাহাড়সহ ভারী এই চাপ তাদেরকে করে ফেলেছে দিশেহারা। বিস্তারিত »