Home » রাজনীতি (page 11)

রাজনীতি

জনগণের কল্যাণ :: প্রয়োজন গণতন্ত্র আর উন্নয়ন উভয়ই

প্রকাশকাল ২৯ জুন ২০১৫

. সালেহউদ্দিন আহমেদ

Last 2একটি রাষ্ট্রের জনগণের আর্থিক সামাজিক উন্নয়নের জন্য প্রয়োজনীয় দুটি আবশ্যক জিনিস হলো রাষ্ট্রীয় কাঠামো এবং রাষ্ট্র কর্তৃক গৃহীত জনগণের কল্যাণে কার্যক্রম পরিচালনা করা। এ দুটি দিকের মাঝখানে প্রয়োজনীয় স্তর হলো একটি সরকার। রাষ্ট্রের মূল কাঠামো ও নীতির মধ্যেই একটি সরকার জনগণের কল্যাণ এবং জনগণকে সেবা দেয়ার জন্য কাজ করে থাকে। একটি সার্বভৌম রাষ্ট্রের মূল ভিত্তি হলো সে দেশের নাগরিক। রাষ্ট্র এবং নাগরিক পরিবর্তনশীল নয়। কিন্তু, সরকার পরিবর্তনশীল।

বর্তমানে একটি তর্ক দেখা গিয়েছে যে, গণতন্ত্র এবং উন্নয়ন দুটি একটি অন্যটির সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ নয়। বিস্তারিত »

উন্নয়ন ও গণতন্ত্র :: শেষ পর্যন্ত দুটোই হারাতে বসেছি

প্রকাশকাল ২৯ জুন ২০১৫

হায়দার আকবর খান রনো

coverশাসক দলের লোকজনের আকর্ণবিস্তৃত গর্বের হাসিবাংলাদেশ ইতোমধ্যেই মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত হয়েছে। বিশ্বব্যাংক বলেছে। প্রতিশ্রুত সময়ের আগেই টার্গেট পূরণ। কি বিরাট সাফল্য। তারা বলবেন, কথা দিয়েছিলাম ২০২১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত করা হবে। কিন্তু আমাদের সুযোগ্য নেতৃত্বে তার অনেক আগেই সেই পর্যায়ে পৌছে গেছে বাংলাদেশ। আমাদের কথায় বিশ্বাস না হয় বিশ্বব্যাংকের রিপোর্ট শুনুন। বিশ্বব্যাংকের মানদন্ড অনুযায়ী পর পর তিন বছর মাথাপিছু আয়ের গড় এক হাজার ৪৫ ডলার হলেই বিশ্বব্যাংক তাকে মধ্যম আয়ের দেশ বলে গণ্য করবে। বাংলাদেশের বর্তমানে মাথাপিছু গড় আয় এক হাজার ৩১৪ ডলার। অতএব বিশ্বব্যাংকের বিবেচনায় আমরা গরিব নামের ‘কলংক’ থেকে উত্তরন ঘটিয়েছি। বিস্তারিত »

ভয়ের সংস্কৃতি বনাম মানবাধিকার সংস্কৃতি

প্রকাশকাল ৭ এপ্রিল ২০১৫

সুলতানা কামাল

dis 2সহজভাবে মানবাধিকারকে ব্যাখ্যা করতে গিয়ে অনেকেই বলে থাকেন – ‘যে কোনো ধরনের ভয় থেকে মুক্ত থাকাই হচ্ছে মানবাধিকার’। তো ভয় মানুষ পায় কোথা থেকে? ছোটবেলায় আমরা অনেকেই ভূতের ভয়ে কুঁকড়ে থাকতাম। বড় হতে হতে যদি ভূতের অস্তিত্বহীনতায় বিশ্বাস আনা যায়, তবে ভূতের ভয়কে এক সময় জয় করা যায়। কিন্তু এর বাইরে আমাদের অন্যরকম ভয়ের মধ্যেও থাকতে হয়। সেটা নির্যাতনের ভয়, অত্যাচারের ভয়, ক্ষুধার ভয় সর্বোপরি মৃত্যুভয়। আধুনিক বৈজ্ঞানিক সমাজে যেহেতু ভূতের কোনো স্থান নেই, তাই ভূতের ভয় নিয়েও কোনো মাথাব্যাথা নেই আধুনিক সমাজের। কিন্তু অন্য যে ভয় তা থেকে মুক্তির উপায় খোঁজা আধুনিক সমাজের প্রধানতম কর্তব্য। আর তাই এই বিষয় মানবাধিকারের অন্যতম প্রধান উপজীব্য। ভূতের ভয় থেকে মুক্তির জন্য আশ্রয় খোঁজা যায় বিজ্ঞানে। কিন্তু এর বাইরে যে ভয় তা থেকে মুক্তির জন্য মানুষ ভরসা খুঁজবে কোথায়? এই প্রশ্নের জবাব খুঁজতে গিয়েই ‘রাষ্ট্র’ ধারণাটার উদ্ভব। মানুষের ভয় যত বাড়তে থাকে, বরাভয় দিতে রাষ্ট্রের ক্ষমতাও বেড়ে চলে তার সঙ্গে পাল্লা দিয়ে। রাষ্ট্রের অতিরিক্ত ক্ষমতা সমস্যার কারণও হয়ে দাঁড়ায় কখনো কখনো। ভয়ের পিঠে বরাভয় দেয়ার বদলে রাষ্ট্র কখনো কখনো নিজেও ভয়সঞ্চারী ভূমিকায় অবতীর্ণ হয়। বিস্তারিত »

একক নিয়ন্ত্রণ নয়, প্রয়োজন গণতান্ত্রিক বহুত্ববাদের চর্চা

প্রকাশকাল ১৮ মার্চ ২০১৫

হোসেন জিল্লুর রহমান

last 1দেশ এক গভীর সংকটে এ নিয়ে দ্বিমতের কোন অবকাশ নেই। সংকটের গভীরতাও যে ১৯৯৬ ও ২০০৬এর সংকটের মাত্রা অতিক্রম করে আরও ভয়াবহ পর্যায়ে উপনীত হয়েছে, এ নিয়েও সম্ভবত আর দ্বিমত থাকছে না। একদিকে বিরোধী আন্দোলনের সূত্র ধরে জনজীবন ও অর্থনীতি বিপর্যস্ত, অন্যদিকে সংকটের রাজনৈতিক চরিত্রকে সম্পূর্ণ অস্বীকার করে সরকারের আগ্রাসী দমন কৌশলের পরিণতি গণতান্ত্রিক বাংলাদেশে আজ পুলিশি রাষ্ট্রের আবহ নিরন্তরভাবে প্রতিষ্ঠা পেয়ে যাচ্ছে। ক্ষমতাসীনদের দম্ভোক্তি ও আস্ফালন এবং বিরোধীদের অনড় অবস্থানের যাতাকলে সাধারণ মানুষের অসহায়ত্ব আজ তলানীতে ঠেকেছে। আশংকার আরও কারণ এই যে, এই অবস্থার পরিবর্তনের কোন ইংগিত কোথায়ও খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। বিস্তারিত »

বাংলাদেশ কি আগের চেয়ে কম ধর্মনিরপেক্ষ হয়ে গেছে?

প্রকাশকাল ১১ নভেম্বর ২০১৫

তাজ হাশমী

Last-1তারা কাজটা আবার করল। মুক্তচিন্তক অভিজিৎ রায়ের বই প্রকাশ করার জন্য অজ্ঞাতপরিচয় কয়েকজন ঘাতক ৩১ অক্টোবর ফয়সাল আরেফিন দীপনকে ঢাকায় তার অফিসে কুপিয়ে হত্যা করেছে। সম্ভাবনা ক্ষীণ, তবুও আশা করছি যে এবার আর ঘাতকেরা বিচার বিভাগের আওতার বাইরে থাকবে না। এবং এর চেয়েও খারাপ কিছু হওয়ার যে আশঙ্কা রয়েছে তাও হবে না, অর্থাৎ পুলিশ এই হত্যাকাণ্ডের জন্য অন্যায়ভাবে কয়েকজন নির্দোষ ব্যক্তিকে আটকাবে না। কেউ নিশ্চিত হতে পারছে না, অতিধর্মনিরপেক্ষ (আলট্রাসেক্যুলার) ও ইসলামাতঙ্কগ্রস্ত লেখকদের হত্যা করাটা বাংলাদেশের দ্রুত ‘আরবীকরণ’ বা ‘ধর্মনিরপেক্ষতাবাদমুক্তকরণ’ করার সাথে সম্পর্কযুক্ত কি না। যারা ২০০৪ সালে হুমায়ুন আজাদের মতো মুক্তিচিন্তাবিদের ওপর হামলা চালিয়েছে এবং গত দুই বছরে অভিজিৎ রায়সহ অর্ধ ডজন লেখককে হত্যা করেছে, পুলিশ এখন পর্যন্ত তাদের কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি।

দীপনকে কারা হত্যা করেছে, কারা অপর তিনজনকে আহত করেছে, সে ব্যাপারে কেউ নিশ্চিত নয়। তারা কি স্রেফ ‘ধর্মনিরপেক্ষবাদের শত্রু?’ বিস্তারিত »

রাষ্ট্রীয় সন্ত্রাস দিয়ে অচলাবস্থা কাটবে না

প্রকাশকাল ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৫

আনু মুহাম্মদ

last 2বর্তমান অচলাবস্থা ও সহিংস পরিস্থিতির কেন্দ্রে অন্যতম বিষয় হলো নির্বাচন। ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারি নির্বাচন না হলে অনির্বাচিত সরকার ক্ষমতা দখল করতো, তাতে বিপদ আরও বাড়তো‘, সরকারি দলের লোকজনের এ যুক্তি খুবই শক্তিশালী। কিন্তু যেভাবে নির্বাচন হয়েছে তার বিকল্প নির্বাচন না হওয়াছিল না, ছিল যথাযথ নির্বাচন হওয়া। আমরা সবাই জানি, বাংলাদেশে নির্বাচন প্রক্রিয়ার যে দশা, সমাজে চোরাই টাকা আর সন্ত্রাস যেভাবে রাজনীতির পরিচালিকা শক্তি, তাতে সব দলের অংশগ্রহণ হলেও যথাযথ নির্বাচন আশা করা যায় না। অর্থ, সহিংসতা, সাম্প্রদায়িকতা ও কুরাজনীতিই নির্বাচন প্রক্রিয়াকে দখল করে রাখে। বিস্তারিত »

ভারতকে কেন্দ্র করে শ্রীলঙ্কা-চীন নতুন সমীকরণে

প্রকাশকাল – ৭ জুন ২০১৫

মোহাম্মদ হাসান শরীফ

Last 3মহিন্দ্র রাজাপাকসেকে হারিয়ে শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্ট হিসেবে ম্যাথ্রিপালা সিরিসেনার আত্মপ্রকাশ দক্ষিণ এশিয়ার রাজনীতিতে নতুন সমীকরণের সৃষ্টি বিবেচিত হয়েছিল। এই ঘটনাকে দেখা হয়েছে শ্রীলঙ্কার রাজনীতিতে চীনের ভূমিকা ম্লান করে ভারতের উত্থান হিসেবে। কিন্তু কয়েক মাসের মধ্যে কী নতুন কিছু ঘটছে? অথচ নির্বাচিত হওয়ার পরপরই ভারত সফরে গিয়ে তিনি দিল্লীর সাথে সম্পর্ক উষ্ণ করার কথা বলেছিলেন। সিরিসেনার পূর্বসূরী রাজাপাকসে প্রবলভাবে চীনের দিকে ঝুঁকেছিলেন। ভারতের চেয়ে তিনি চীনকে গুরুত্ব দিতেন। বিস্তারিত »