Home » রাজনীতি (page 41)

রাজনীতি

কি কারণে ঋণ করে ভারতকে করিডোর

আমাদের বুধবার প্রতিবেদন

dis 2পণ্য চলাচলে ভৌগোলিক সহযোগিতার তিনটি রূপ রয়েছে ট্রানজিট, ট্রান্সশিপমেন্ট ও করিডোর। এই তিন ব্যবস্থার ভিন্ন তাৎপর্য রয়েছে। ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশ এ বিষয়ে ঠিক কোন সহযোগিতায় যাচ্ছে আনুষ্ঠানিক ও রাষ্ট্রীয়ভাবে? ট্রানজিট বলতে নির্দিষ্ট একটি ভূমি বা জলপথ দিয়ে সুনির্দিষ্ট চুক্তি ও নিয়মনীতির ভিত্তিতে আন্তঃরাষ্ট্রীয় যাত্রী এবং পণ্য পরিবহন বোঝায়। আপাতদৃষ্টিতে ‘ট্রানজিট’ শব্দটি প্রয়োগ করা হলেও ভারতকে বাংলাদেশ যে সুবিধা দিয়ে যাচ্ছে তা সরাসরি করিডোর না হলেও পণ্য চলাচলের সমধর্মী সুবিধা। ট্রানজিটের যান চলাচলকালে যদি বাংলাদেশী যানের চলাচল স্থগিত রাখতে হয় তবে তাকে ‘করিডোরধর্মী’ সুবিধাই বলতে হবে। বিস্তারিত »

বাংলাদেশ কি কোকেনেরও চোরাচালান রুট

আমাদের বুধবার প্রতিবেদন

dis 1চট্টগ্রামে সূর্যমুখী তেলের সাথে তরল কোকেনের উপস্থিতি পাওয়া এবং এর চালান জব্দ করার পরে ঢাকায় রোববার রাতে এক কেজি কোকেনসহ দুই মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করার দাবি করেছে পুলিশ। চট্টগ্রাম বন্দরে তেলের সাথে পাওয়া কোকেনের সাথে এর কোনো সম্পৃক্ততা আছে কিনা তাও যাচাইবাছাই করে দেখা হচ্ছে। চট্টগ্রামে কোকেন চোরাচালান ধরা পড়ার পরে কেমন করে এই কোকেন বাংলাদেশে এসেছে, কারা এর সাথে জড়িত, বাংলাদেশ কোকেন চোরাচালানের রুট হিসেবে ব্যবহৃত হচ্ছে কিনা এসব বিষয় নিয়ে নানা অনুসন্ধান শুরু করা হয়েছে। সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা বলছেন, যেহেতু বাংলাদেশে কোকেন ব্যবহারের বিস্তার খুব একটা নেই সে কারণে বাংলাদেশকে কোকেন চোরাচালানের নতুন রুট হিসেবে ব্যবহারের চেষ্টা চলছে। বিস্তারিত »

ইয়াবা না তৃতীয় কোন দেশের মদত

শাহাদত হোসেন বাচ্চু

cover২৬ জুন দিনটি ছিল মাদকদ্রব্যের অপব্যবহার ও অবৈধ পাচারবিরোধী আন্তর্জাতিক দিবস। পাঠক লক্ষ্য করলে যুগপৎ হতাশা ও কৌতুক বোধ করবেন এটা ভেবে যে, মাদক অপব্যবহার, তার মানে কি ব্যবহার করা যাবে, অপব্যবহার করা যাবে না? আবার পাচার তো সবসময়ই অবৈধ, এর সাথে অবৈধ শব্দটি যুক্ত করা কি অন্য সবকিছুকে বৈধ করে নেয়ার প্রয়াস? আমরা জানি না, হতে পারে এটি আন্তর্জাতিক দিবস, তাই নামটিও বোধকরি ওরকম। তবে এই দিবসে স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর বক্তব্য প্রাণিধানযোগ্য। ঢাকার একটি সেমিনারে তিনি বলেছেন, ‘অবৈধ মাদক পাচারের সাথে যুক্ত ব্যক্তিদের রাজনৈতিক পরিচয় বিবেচনা করা হবে না’। প্রশ্ন হচ্ছে, কথাটি কি তিনি সচেতনভাবে বলেছেন, নাকি মুখ ফস্কে বেরিয়ে গেছে? বিস্তারিত »

মিয়ানমারের উপরে জোরালো কূটনৈতিক এবং আন্তর্জাতিক চাপ সৃষ্টি করা উচিত :: শাফকাত মুনীর

LAST 1শাফকাত মুনীর, নিরাপত্তা বিষয়ক প্রভাবশালী গবেষণা সংস্থাবাংলাদেশ ইন্সটিটিউট অফ পিস এ্যন্ড সিকিউরিটি স্টাডিজএর এসোসিয়েট রিসার্স ফেলো এবং নিরাপত্তা বিশ্লেষক। মিয়ানমার কর্তৃক বিজিবি’র সদস্যকে ধরে নিয়ে যাওয়া, তাকে ফেরত না দেয়া ও বাংলাদেশের করনীয় এবং দু’দেশের দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেছেন আমাদের বুধবারএর সাথে।

আমাদের বুধবার : মিয়ানমার বাংলাদেশ সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিজিবি’র একজন সদস্যকে ধরে নিয়ে আটকে রেখেছে। তাকে ফেরত দেয়া হচ্ছে না। এই প্রেক্ষাপটে বাংলাদেশমিয়ানমার সম্পর্ককে আপনি কিভাবে বিশ্লেষণ করছেন? বিস্তারিত »

রাজনৈতিক ফায়দা ও বাড়াবাড়িতে ক্রিকেট যেন বিপথগামী না হয়

LAST 2সামগ্রিকভাবে কূটকৌশলে, নিজেদের ফায়দা লোটার জন্য দুর্ভাগ্যজনকভাবে যে বিভক্তির সৃষ্টি করা হয়েছে ও হচ্ছে আজ সে বিষয়ে আমাদের মনোযোগী হবার সময় এসেছে। রাজনৈতিক বাড়াবাড়িতে ক্রিকেট যেন বিপথগামী না হয়, সেদিকে নজর দিতে হবে। রাজনৈতিক ফায়দা নিতে গিয়ে আমরা আমাদের অনেক সোনালি ঐতিহ্যকে ধ্বংস করে ফেলেছি। তাই ক্রিকেটের সাফল্যকে রাজনৈতিক পুঁজি করার প্রবণতা, নিজেদের কৃতিত্ব হিসেবে জাহির করা, ক্ষমতায় থাকার সুযোগকে কাজে লাগানোর লোভ সংবরণ করতেই হবে।

মোহাম্মদ হাসান শরীফ বিস্তারিত »

আইএসের সেরা অস্ত্র যুক্তরাষ্ট্রের

সিন ডি নেইলর, ফরেন পলিসি

অনুবাদ: আসিফ হাসান

LAST 3গত ১২ বছরে যুক্তরাষ্ট্র যখন ইরাকি নিরাপত্তা বাহিনীকে তিন হাজারেরও বেশি সাজোয়া হামভি দিয়েছিল, তখন মার্কিন কর্মকর্তারা কল্পনাও করতে পারেননি, এই সাধারণ ব্যবহার্য যানটি ইসলামিক স্টেট (আইএস) নামের ওয়াশিংটনের শত্রুদের হাতে ভয়াবহ অস্ত্রে পরিণত হবে।

ঠিক সেটাই ঘটেছে। মে মাসের মধ্যভাগে তিন দিনের যুদ্ধে রামাদি জয় করার সময় ইরাকি নিরাপত্তা বাহিনীর প্রতিরক্ষা লাইন গুঁড়িয়ে দেওয়ার কাজে ইসলামিস স্টেট ৩০টি হামভিকে চলমান আত্মঘাতী বোমায় রূপান্তরিত করেছিল। গ্রুপটি সাজোয়া বুলডোজার এবং মার্কিননির্মিত অন্তত একটি এম১১৩ সাজোয়া পারসোন্যাল ক্যারিয়ারও কাজে লাগিয়েছিল। বিস্তারিত »

ক্ষুধার সাম্রাজ্য, অপচয় এবং মৃতের অর্থনীতি

গৌতম মুখোপাধ্যায়

LAST 4অপচয় নিয়ে যে তথ্য রয়েছে তাতে সহজেই চোখ কপালে উঠে যাবে।‌ এটা এখন অনেকেই জানেন যে, ক্ষুধা, দুর্ভিক্ষ বা অপুষ্টির কারণ খাদ্যের অভাব নয়।‌ বরং খাদ্য কেনায় ব্যর্থতা, তাছাড়া তাকে শরীরে গ্রহণ করার অক্ষমতাই এর কারণ।‌ সরাসরি বললে দারিদ্র্যই এর কারণ।‌ সেজন্যই খাদ্যের দাম হঠাৎ করে বেড়ে গেলে তৈরি হয় রাজনৈতিক অস্থিরতা। এমনকি লেগে যায় দাঙ্গাও।‌ ২০০৭০৮ সালে বিশ্ব জুড়ে খাদ্যের দাম একলাফে বেড়ে যাওয়ার পর আফ্রিকার একটা বড় অংশে যেমন লেগেছিল খাদ্যদাঙ্গা।‌ বিস্তারিত »