Home » অর্থনীতি » চীন: পরাশক্তির বিবর্তন-৫৪ : বাজারমুখি সংস্কারের পেছনে গোল্ডম্যান ও মরগ্যান

চীন: পরাশক্তির বিবর্তন-৫৪ : বাজারমুখি সংস্কারের পেছনে গোল্ডম্যান ও মরগ্যান

আনু মুহাম্মদ ::

একটি দেশ কয়েক দশকে সমাজতান্ত্রিক নীতিমালা ও কর্মপদ্ধতি, হিসাব পদ্ধতি অনুযায়ী দক্ষ জনশক্তি ও প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলার পর কী করে বাজার অর্থনীতির সর্বাধুনিক ব্যবস্থাপনা, হিসাব পদ্ধতি ও নীতিমালা আয়ত্ত করে ফেললো তা এক বড় বিস্ময়ের বিষয়ই বটে। শুধু আয়ত্তই নয়, পুরনো এবং প্রভাবশালী পুঁজিবাদী বাজার অর্থনীতির প্রতিষ্ঠানগুলোর সাথে মোকাবেলা করে নিজেদের অর্থনীতি সংস্কার করে পাল্লা দিয়ে দ্রুতগতির প্রবৃদ্ধিও নিশ্চিত করলো।

এই বিষয়ে পুরো তথ্য পাওয়া কঠিন তবে যতটুকু জানা যায় তাতে দেখা যায় প্রথমত, বাজারমুখি সংস্কার সম্পর্কে রাজনৈতিক সিদ্ধান্ত নেবার পর চীনা পার্টি প্রস্তুতি নিতে সময় নিয়েছে, গবেষণা প্রশিক্ষণে বিস্তারিত কর্মসূচি নিয়েছে, বিশে^র পুঁজিবাদী কেন্দ্র দেশগুলোতে লোক পাঠিয়েছে, সেসব দেশের বিশেষজ্ঞদের নিয়োগ দিয়েছে আর সংস্কার নিয়ে খুব ধীরগতিতে অগ্রসর হয়েছে। চীনের বাজারমুখি এই সংস্কার নিয়ে বিশ্বের পুঁজিবাদী সকল প্রতিষ্ঠান বহুজাতিক কোম্পানি, বহুজাতিক ব্যাংক ছাড়াও বিভিন্ন অর্থকরী ও পরামর্শক প্রতিষ্ঠানের আগ্রহ ছিলো অপরিসীম। কেননা এর সাথে তাদের বিশাল বাণিজ্যিক স্বার্থ সম্পর্কিত ছিলো। প্রথম থেকেই তাদের অবিরাম যাতায়াত ছিলো। দুপক্ষের আগ্রহেই তাদের মধ্যে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক স্থাপিত হয়। দীর্ঘমেয়াদে অনেক গুরুত্বপূর্ণ প্রাতিষ্ঠানিক পরিবর্তনে স্থপতির কাজ প্রধানত এই পশ্চিমা প্রতিষ্ঠানগুলোই করেছে। এদের মধ্যে শীর্ষস্থানীয় দুটো প্রতিষ্ঠান পুঁজিবাদী বিশ্বে বহু ভাবে পরিচিত- গোল্ডম্যান স্যাকস ও মরগ্যান স্ট্যানলি। দুটো প্রতিষ্ঠানের সাথেই মার্কিন শীর্ষ পর্যায়ের নীতি নির্ধারকরা বিভিন্ন সময় বিভিন্নভাবে জড়িত ছিলেন, আছেন। গোল্ডম্যান স্যাকস এর মধ্যে অগ্রগণ্য। এর সাথে আরেকটি প্রতিষ্ঠানের নামও উচ্চারিত হয়। একদিকে চীনের সাথে কাজ করবার জন্য বিশ্বের বিভিন্ন শীর্ষস্থানীয় অর্থকরী প্রতিষ্ঠানের আগ্রাসী প্রতিযোগিতা, অন্যদিকে চীনের সরকারের তাদের ওপর ভর করে বিশ্ব পুঁজিবাদী ব্যবস্থায় প্রভাবশালী অবস্থান সৃষ্টির আকাঙ্খা এই দুই মিলে দ্রুত পরিবর্তন সংঘটিত হয়েছে।

চীনের সংস্কার নিয়ে গবেষণা করতে গিয়ে দুজন বাজারমুখি গবেষক তাই যা বলেছেন তার মধ্যে সত্যতা আছে। তাঁরা বলেছেন, ‘একুশ শতকের নতুন চীন গোল্ডম্যান স্যাকস ও লিংকলেটারস এন্ড পেইনস এর সৃষ্টি, নতুন চীন সৃষ্টিতে এদের ভূমিকা সাংস্কৃতিক বিপ্লবে চীনের ছোট লাল বই-এর মতোই।’[i]এই পশ্চিমা গবেষকদের গবেষণা থেকেই নীচে চীনের বিভিন্ন কোম্পানি কোন কোন বিনিয়োগ সহযোগী প্রতিষ্ঠানের সাথে পশ্চিমা পুঁজিবাজারে দ্রুত বিস্তার লাভ করেছে তার একটি তালিকা দেয়া হলো।

*চিহ্নিত কোম্পানিগুলোর চেয়ারম্যান চীনা কমিউিনিস্ট পার্টির সাংগঠনিক কমিটির সাথে যুক্ত।


 

[i] Carl E. Walter, Fraser J.T. Howie: Red Capitalism, The Fragile Financial Foundation of China’s Extraordinary Rise, Wiley, 2012. p 179.