Home » প্রচ্ছদ কথা (page 22)

প্রচ্ছদ কথা

ক্ষমতাসীনদের নির্বাচনভীতির কারণ

আমীর খসরু

Coverক্ষমতাসীনদের পক্ষ থেকে এমন একটা ধারণা বদ্ধমূল হয়ে গেছে যে, দেশে এখন আর কোনোই কার্যকর বিরোধী দল নেই, তাদের দমন প্রক্রিয়ায় ক্ষমতাসীনরা ‘বিজয়ী’ হয়েছে এবং এ থেকে তারা লাভবান হয়েছে। আর এ কারণে তাদের ধারণা হচ্ছে, সত্যিকার রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা বিরাজমান রয়েছে, আর এই স্থিতিশীলতাও দীর্ঘমেয়াদী। এমন পরিস্থিতি বিনিয়োগ সহায়ক এবং এর মধ্যদিয়ে দেশের উন্নয়ন হতে থাকবে দ্রুতগতিতে এমনটাও তাদের ধারণা। আয়ের সংখ্যাতাত্ত্বিক মারপ্যাচে নিম্ন মধ্য আয়ের দেশ হিসেবে বিশ্বব্যাংকের তালিকায় নাম ওঠার কৃতিত্ব তারা দাবি করছে। অবশ্য পরীক্ষার ফলাফল থেকে ক্রিকেট খেলাসহ সব কিছুকেই এই সরকার তাদের মহান কৃতিত্ব বলে হাজির করতে কোনোই কুণ্ঠবোধ করে না। বিস্তারিত »

গণতন্ত্র ও আইনের শাসনের অনুপস্থিতির কারণেই…

হায়দার আকবর খান রনো

Coverঊনবিংশ শতাব্দীতে বৃটিশ রাজত্বের প্রথম যুগে আমাদের সমাজ জীবনে কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ পরিবর্তন সূচিত হয়েছিল। অবশ্যই তা ছিল পরাধীনতার ফসল, বৃটিশ রাজত্বের কুফল। যদিও বাঙালি হিন্দু মধ্যবিত্ত ও উচ্চবিত্তের একাংশের মধ্যে নবজাগরণ দেখা দিয়েছিল, যাকে অনেক সময় রেনেসাঁ বলে আখ্যায়িত করা হয়, তবু তা বিশাল জনগোষ্ঠীর সমাজ জীবনকে খুব একটা প্রভাবিত করতে পারেনি। অন্যদিকে, ইংরেজদের আনুকূল্যে গড়ে ওঠা মুৎসুদ্দি ও সামন্তশ্রেণী কলকাতাকেন্দ্রিক যে কুৎসিত বাবু কালচার তৈরি করেছিল তা সমাজ জীবনকে কলুষিত করেছিল দলীয়ভাবে। এই তথাকথিত বাবু কালচারকে নিন্দা ও ব্যঙ্গ করে মহাকবি মাইকেল লিখেছিলেন, ‘বুড়ো শালিকের ঘাড়ে রো’ ও ‘একেই বলে সভ্যতা’। বিস্তারিত »

নিয়ন্ত্রিত রাজনীতি আর মধ্যম আয়ের উচ্ছাস

শাহাদত হোসেন বাচ্চু

coverআহা, কি আনন্দ আকাশেবাতাসে! বাংলাদেশ এখন নিম্ন মধ্য আয়ের দেশ। অনানুষ্ঠানিকভাবে কিছুদিন ধরে জানা ছিল বিষয়টি, বিশ্বব্যাংকের রিপোর্ট তা আনুষ্ঠানিকভাবে জানিয়ে দিল। আনন্দের রেশ সহসাই ফুরোবে না, প্রধানমন্ত্রী ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে কক্সবাজার বিমান বন্দর উদ্বোধন করতে গিয়ে জানিয়ে দিয়েছেন, আগামী তিন বছরের মধ্যে বাংলাদেশ হবে মধ্যম আয়ের দেশ। তার ভাষায়, এই হচ্ছে ডিজিটাল বাংলাদেশ। প্রধানমন্ত্রীর সাথে ডিজিটাল বাংলাদেশ প্রসঙ্গে একমত হতে পারলে খুশিই হতাম। আগামী তিন বছরে মধ্যম আয়ের দেশ হবে কিনা, স্বল্পোন্নত দেশের (এলডিসি) তালিকা থেকে বেরিয়ে আসবে কিনা সেটি ভবিষ্যতের বিষয়। তবে তাঁর ডিজিটাল বাংলাদেশে উচ্চ মাধ্যমিকে ভর্তিচ্ছু লক্ষ লক্ষ ছাত্রছাত্রীর সচিত্র দুর্দশা এবং আহাজারী দেখে মনে হচ্ছে, সত্যিই তো, এটি যে ডিজিটাল বাংলাদেশ! বিস্তারিত »

ইয়াবা না তৃতীয় কোন দেশের মদত

শাহাদত হোসেন বাচ্চু

cover২৬ জুন দিনটি ছিল মাদকদ্রব্যের অপব্যবহার ও অবৈধ পাচারবিরোধী আন্তর্জাতিক দিবস। পাঠক লক্ষ্য করলে যুগপৎ হতাশা ও কৌতুক বোধ করবেন এটা ভেবে যে, মাদক অপব্যবহার, তার মানে কি ব্যবহার করা যাবে, অপব্যবহার করা যাবে না? আবার পাচার তো সবসময়ই অবৈধ, এর সাথে অবৈধ শব্দটি যুক্ত করা কি অন্য সবকিছুকে বৈধ করে নেয়ার প্রয়াস? আমরা জানি না, হতে পারে এটি আন্তর্জাতিক দিবস, তাই নামটিও বোধকরি ওরকম। তবে এই দিবসে স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর বক্তব্য প্রাণিধানযোগ্য। ঢাকার একটি সেমিনারে তিনি বলেছেন, ‘অবৈধ মাদক পাচারের সাথে যুক্ত ব্যক্তিদের রাজনৈতিক পরিচয় বিবেচনা করা হবে না’। প্রশ্ন হচ্ছে, কথাটি কি তিনি সচেতনভাবে বলেছেন, নাকি মুখ ফস্কে বেরিয়ে গেছে? বিস্তারিত »

স্বপ্ন-কল্পনার রগরগে কথামালার ফুলঝুড়ি

শাহাদত হোসেন বাচ্চু

এক.

COVERজাতি হিসেবে বাঙালী স্মৃতিভ্রষ্টএই বদনাম ঘোচাতে নয়, লেখাটি শুরু করার জন্য গত ৮ ও ৯ মে ২০১৫এ প্রকাশিত জাতীয় দৈনিকগুলোর প্রধান প্রধান শিরোনামগুলি স্মরণে আনা যাক – ‘মানবপাচার বেড়েছে ৬১%, ৮০ শতাংশ বন্দীশিবির মালয়েশিয়ায়, থাইল্যান্ডের জঙ্গলে দু’দিনে ১২৩ বাংলাদেশী উদ্ধার (প্রথম আলো)। মানব পাচারে সক্রিয় চার দেশের সিন্ডিকেট, পাচার রোধে ব্যর্থ আইনশৃঙ্খলা বাহিনী, প্রতারক চক্রের কবলে বিদেশগামীরা (ইনকিলাব)। থাইল্যান্ডের আরেকটি জেলায় গণকবর, টেকনাফে শীর্ষ মানবপাচারকারী ধলুসহ নিহত ০৩, থাইল্যান্ডে বেঁচে যাওয়া ১২৩ বাংলাদেশী উদ্ধার (কালের কণ্ঠ)। মানবপাচার বাড়ছে আকাশপথে, তিন মাসে ২৫ হাজার বাংলাদেশী পাচারজাতিসংঘের উদ্বেগ (নয়া দিগন্ত)। টেকনাফে বন্দুকযুদ্ধে তিন পাচারকারী নিহত, থাইল্যান্ডের জঙ্গলে আরো ৩০ কবর (আলোকিত বাংলাদেশ)বিস্তারিত »

উন্নয়নের নামে ভয়াবহ রাজনৈতিক শূন্যতা

আমীর খসরু

COVERদেশে বর্তমানে কোনো রাজনৈতিক কর্মকাণ্ড বা ক্রিয়াকলাপ নেই। বিরোধী দল, মত, পক্ষ যে বিদ্যমান আছে, তার কোনো আলামতও সাধারণ মানুষের কাছে দৃশ্যমাণ নয়। সংকটের ব্যাপারটি হচ্ছে এখানে যে, এই আছে কি নেই, তা বোঝারও কোনো উপায় এবং ব্যবস্থাটিও সচল রাখা হয়নি। ক্ষমতাসীন পক্ষের কি করা উচিত, কোন পথে চলা উচিত এবং কোন দিকে গেলে ভালো হয় এমনটি বলারও কেউ নেই অর্থাৎ তেমন অবস্থাও রাখা হয়নি। জাতীয় সংসদে বাজেট অধিবেশন চলছে বটে, কিন্তু কোনো উত্তাপ তো নেই, অধিকাংশ মানুষ জানেনও না বা জানার আগ্রহও নেই প্রতিদিন এতো টাকা খরচ করে চলা সংসদ অধিবেশন সম্পর্কে। বিস্তারিত »

প্রধানমন্ত্রী মোদীর বাংলাদেশ সফরের ফলাফল বিশ্লেষণ

আমীর খসরু

COVERনরেন্দ্র মোদীর ঢাকা সফরের আগেই তিনি স্থল সীমান্ত চুক্তিকে ‘বার্লিন ওয়াল’ বা ‘বার্লিন দেয়ালে’র পতনের সাথে তুলনা করেছেন। এছাড়া স্থল সীমান্ত চুক্তির অনুমোদন নিয়ে ভারত এবং বাংলাদেশের দিক থেকে এমন একটা মনোভাব পোষণ করা হচ্ছে যে যাতে মনে হয় ঘটনাটি একেবারে নতুন ঘটেছে এবং ভারত যথেষ্ট দয়াদাক্ষিণ্য দেখাচ্ছে। কিন্তু এটি যে নতুন কোনো ঘটনা নয়, বরং বহু আগেই স্থল সীমান্ত চুক্তি ভারতের দিক থেকে অনুমোদন করা জরুরি ছিল সে বিষয়টি ভারত ও বাংলাদেশের সরকারগুলোর পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে না। ১৯৭৪ সালের ১৬ মে যে স্থল সীমান্ত চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছিল শেখ মুজিব এবং ইন্দিরা গান্ধীর মধ্যে এবং তারই ফলশ্রুতিতে বাংলাদেশ সাথে সাথে বেরুবাড়ি ভারতকে হস্তান্তর করে। বিস্তারিত »