Home » মতামত (page 21)

মতামত

বর্তমান পরিস্থিতি সম্পর্কে ড. আকবর আলি খানের বিশ্লেষণ

Akbar Ali Khan picবর্তমান পরিস্থিতি খুবই উদ্বেগজনক বলে মনে হচ্ছে। বাংলাদেশে এখন যা ঘটছে, তাহলো দীর্ঘদিন ধরে সাংঘর্ষিক রাজনীতির ফসল। যতোই নির্বাচন কাছে এগিয়ে আসছে, ততোই এই সাংঘর্ষিক রাজনৈতিক পরিস্থিতি জোরালো হয়ে উঠছে। আর এর সঙ্গে আরো উপসর্গ দেখা দিয়েছে যেমন একদিকে যুদ্ধাপরাধীদের বিচার অন্যদিকে, বিভিন্ন ধর্মভিত্তিক রাজনৈতিক সংগঠনের উত্থান এগুলো সবই সাংঘর্ষিক রাজনীতিকে তীব্রতর করে তুলছে। এই প্রেক্ষিতে যদি বড় রাজনৈতিক দলগুলো সহিষ্ণুতা বজায় রেখে একে অপরের সঙ্গে শ্রদ্ধাশীল হয়ে মতৈক্য পৌঁছুতে না পারে, তাহলে একটি অবাধ, সুষ্ঠু, নিরপেক্ষ নির্বাচন সুদূর পরাহত বলে আমাদের কাছে মনে হয়। বিস্তারিত »

গার্মেন্টস শ্রমিকদের প্রতিক্রিয়া

আমাদের বুধবার প্রতিবেদন

savar 4কর্মস্থলে শুধু জীবনই দিতে হয় না, বেঁচে থাকতে গার্মেন্টস শ্রমিকদের আর্থিকসহ নানা ধরনের সঙ্কট মোকাবেলা করতে হয়। সাভারের ভবন ধসের পরে আতঙ্কিত, উদ্বিগ্ন, ক্ষুব্ধ ও শোকাহত করেছে। আর সে কথাই তারা বলেছেন, আমাদের বুধবারএর প্রতিবেদকের সঙ্গে।

১২ নম্বরের এক গার্মেন্ট কারখানার অপারেটর ফজিলাতুন্নেসা। দুই সন্তান ও রিকশাচালক স্বামীকে নিয়ে দুয়ারীপাড়া বস্তিতে থাকেন। ভাড়া দেড় হাজার টাকা। বিস্তারিত »

শ্রমিক গণহত্যার দায় থেকে নিষ্কৃতি মিলবে না

আনু মুহাম্মদ

Anu_Mohammad-2বাংলাদেশ কীভাবে চলছে, কীভাবে চোরাই কোটিপতি তৈরি হচ্ছে, কারা এই দেশ পরিচালনা করছে, রাজনৈতিক ক্ষমতার সঙ্গে অর্থনীতি কীভাবে যুক্ত হচ্ছে, কীভাবে দখলদার, লুটেরা ও সন্ত্রাসীরা ধনিকগোষ্ঠী তৈরি করছে, রানা প্লাজা আর তার মালিকের ইতিহাস সেটাই স্পষ্ট করে দেখায়। রানা প্লাজা একটি দখলকৃত নীচুজমির ওপর নির্মিত, যা সকল বিধিমালা অগ্রাহ্য করে নির্মাণ করা হয়েছে। ছয় তলার ফাউন্ডেশন থাকলেও নির্মাণ করা হয়েছে বেশি। গার্মেন্টস কারখানা স্থাপনের মতো পরিবেশ না থাকলেও তা করা হয়েছে। বিস্তারিত »

লন্ডভন্ড জনজীবন এবং শাসকদের হেফাজত

ফারুক আহমেদ

violenceদেশ ভাল নেই। দেশের মানুষ ভাল নেই। ক্ষমতার অন্যায় সুবিধা প্রাপ্তরা ছাড়া দেশের যে কোন মানুষের কাছে তার জীবনের কথা জিজ্ঞাসা করলে এই দুটি কথা অবশ্যই বলবেন। ভিন্ন ভিন্ন শ্রেণীপেশার মানুষের অবস্থান অনুযায়ী ভিন্ন ভিন্ন সমস্যা থাকে। এসব সমস্যার মধ্যে পারষ্পরিক সম্পর্কও থাকে।কিন্তু এখন যে কোন শ্রেণীপেশার মানুষ তাঁর অবস্থান থেকে অবস্থান অনুযায়ী নির্দিষ্ট সমস্যার কথা বলছেন না। বলতে পারছেন না। অবস্থা এমন হয়েছে যে,দীর্ঘদিন ধরে ভিন্ন ভিন্ন অসুখে ভোগা সকল মানুষের গায়ে আগুন লাগিয়ে দেওয়ার মত। এ অবস্থায় নিজ নিজ অসুখের কথা বলার তাদের আর কোন উপায় নেই।অন্য সকল অসুখকে চাপা দিয়ে রেখে এখন তারা পুড়ে যাওয়া থেকে নিজেদেরকে রক্ষা করতে বাধ্য। বিস্তারিত »

রাজনৈতিক সঙ্কটে স্থবির অর্থনীতি – প্রতিক্রিয়া

আমাদের বুধবার প্রতিবেদন

politics-1-বিদ্যমান রাজনৈতিক সহিংসতা এবং সঙ্কটের কারণে অর্থনীতি পরিস্থিতি প্রতিদিনই নাজুক অবস্থার দিকে যাচ্ছে, আর্থিক খাতে দেখা দিচ্ছে নানাবিধ জটিলতা। বিনিয়োগ কমছে, কমছে রফতানি এবং সঙ্গে সঙ্গে বাংলাদেশের ব্যাপারে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে এক নেতিবাচক ধারণার সৃষ্টি হচ্ছে। এ কারণে বাংলাদেশে বৈদেশিক বিনিয়োগকারী এবং ব্যবসাবাণিজ্য করতে আগ্রহীরা উৎসাহ হারিয়ে ফেলছেন। এর প্রভাব সরাসরি পড়ছে তৈরি পোশাক শিল্পসহ বিভিন্ন খাতে। অভ্যন্তরীণভাবেও অর্থনীতির পরিস্থিতি বেহাল অবস্থায় পড়ে গেছে। সার্বিক অবস্থায় রাজনৈতিক সংঘাতের কারণে স্থবির হয়ে পড়ছে অর্থনীতি। আর এর উপরেই প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন দেশের বিশিষ্ট অর্থনীতিবিদ, ব্যবসায়ী এবং সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিবর্গ। বিস্তারিত »

মার্চ মাসের অনলাইন জরিপ

online-voting-1মার্চ মাসে বিভিন্ন দৈনিকে প্রকাশিত অনলাইন জরিপ থেকে বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে পাঠকদের মতামতের একটি চিত্র মোটামুটি পাওয়া যায়। তিনটি জাতীয় দৈনিকের অনলাইন জরিপ প্রকাশ করা হলো।

প্রথম আলো

জামায়াতের পক্ষে আবস্থান নিয়ে বিএনপি ভবিষ্যতে লাভবান হবে বলে মনে করেন কি? ভোট দিয়েছেন ১১০০৬ জন। হ্যাঁ ৫০ শতাংশ, না ৪৮ শতাংশ। (৩ মার্চ ২০১৩) বিস্তারিত »

মুক্তিযুদ্ধের প্রেক্ষাপট এবং বাম-প্রগতিশীলদের ভূমিকা

ভারতে গৃহবন্দী মওলানা ভাসানী

হায়দার আকবর খান রনো

. জাতীয় মুক্তি সংগ্রাম সমন্বয় কমিটি

moulana bhasani১৯৭১ সালের ১ ও ২ জুন কলকাতার বেলেঘাটার এক স্কুলে তদানীন্তন পূর্ব পাকিস্তানের কয়েকটি বাম ও কমিউনিস্ট দল ও গণসংগঠন এক সম্মেলনে মিলিত হয়ে, গঠন করেছিল, ‘বাংলাদেশ জাতীয় মুক্তি সংগ্রাম সমন্বয় কমিটি।’ ভাসানী ন্যাপ, কমিউনিস্ট বিপ্লবীদের পূর্ব বাংলা সমন্বয় কমিটি, বাংলার কমিউনিস্ট পার্টি (দেবেন শিকদার) প্রমুখ দলের নেতারা এতে উপস্থিত ছিলেন। সভাপতিত্ব করেছিলেন বরদা চক্রবর্তী। বাংলাদেশ জাতীয় মুক্তি সংগ্রাম সমন্বয় কমিটির ঘোষণাপত্র রচনা ও পেশ করেছিলেন এই লেখক। এই সমন্বয় কমিটির সভাপতি নির্বাচিত করা হয়েছিল, মওলানা ভাসানীকে, তাঁর অনুপস্থিতিতেই।

বাংলাদেশ জাতীয় মুক্তি সংগ্রাম সমন্বয় কমিটি’র ঘোষণাপত্রটি তখন দেশীবিদেশী পত্রপত্রিকায় বহুল প্রচারিত হয়েছিল। ঘোষণাপত্রের একটি কপি হাতে নিয়ে কাজী জাফর আহমদ, রাশেদ খান মেমন ও আমি প্রবাসী সরকারের প্রধানমন্ত্রী তাজউদ্দিন আহমেদের সঙ্গে দেখা করি। বিস্তারিত »